চট্টগ্রাম আদালতে বিচারক সংকট: নিষ্পতির অপেক্ষায় ১ লাখ ২৫ হাজার মামলা

21
fb_img_1466519789943
চট্টগ্রাম পুরাতন আদালত ভবন। বর্তমানে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়।

চট্টগ্রামে বিচারক সংকটের মুখে বিচার কাজে অনেকটা স্থবিরতা নেমে আসার উপক্রম হয়েছে। জেলা জজের অধীন ৪১টি বিচারক পদের মধ্যে ৯টি পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য পড়ে আছে। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ জেলা জজের পদও রয়েছে। অথচ এসব আদালতে বিচারাধীন রয়েছে ১ লাখ ২৫ হাজার মামলা। একইভাবে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের একটি বিচারকের পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য রয়েছে।

screenshot_5
.

আদালতের দেয়া সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজের আওতাধীন আদালতগুলোতে ৯৫ হাজার ৭৮১টি দেওয়ানী, ৮ হাজার ৪৮০টি ফৌজদারি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এছাড়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ অন্যান্য আদালতগুলোতে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩০ হাজারের কম নয়। কিন্তু এখানকার ৪১টি বিচারক পদের মধ্যে জেলা ও দায়রা জজসহ ৯টি পদ শূন্য।

শুধু  জেলা ও দায়রা জজ নয়। মহানগর দায়রা জজ আদালতেরও একই অবস্থা। দায়রা ও সেশন আদালতে ১৮ হাজার ৭২৫, বিশেষ ট্রাইব্যুনালে ২ হাজার ১৮০, ফৌজদারি আপিল আদালতে ১ হাজার ১২৬টি মামলাসহ বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ২৩ হাজার ৮৪টি। এছাড়া মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আরো ১৮ হাজার মামলা বিচারাধীন অবস্থায় রয়েছে। তবে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ৯টি পদের মধ্যে ৪টি বর্তমানে শূন্য রয়েছে।

screenshot_3
.

চট্টগ্রামে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের তিনজন বিচারকের মধ্যে তৃতীয় নম্বর আদালতের বিচারকের পদ গত তিন মাস ধরে শূন্য রয়েছে। এ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে ৩ হাজার ৬০০টি মামলা।

সরকার নিয়োজিত কৌশুলী জানিয়েছেন, শূন্য আদালতগুলোতে অন্যান্য আদালতের বিচারকেরা ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এ অবস্থায় ভারপ্রাপ্ত আদালতে জামিন শুনানি ছাড়া অন্য শুনানি তেমন হয় না।

এখনো কোন মন্তব্য করা হয়নি