সীতাকুণ্ডে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে মাকে কুপিয়ে জখম

0
.

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
সীতাকুণ্ডে (বিউটি ১৪) ছদ্রনাম নামের ৮ ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে ব্যর্থ হয়ে ওই ছাত্রীর মাকে কুপিয়ে আহত করেছে সাইফুল নামক এক যুবক।

সোমবার সন্ধ্যা ৭ টার সময় উপজেলার সলিমপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিউটির বাবা আনোয়ার হোসেন জানান, সলিমপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের টিএন্ডটি কলোনীর বাসাতে একই এলাকার মৃত আব্দুস ছালামের ছেলে সাইফুল ইয়াবা সেবন করে ঘরে ঢুকে আমার মেয়েকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে, এসময় আমার স্ত্রী বাঁধা দিতে গেলে সে আমার স্ত্রী মুক্তা বেগমকে দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

তাকে দ্রুত সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। এ ব্যাপারে সীতাকুণ্ডে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আনোয়ার জানায়, সাইফুল একজন মাদকসেবী এবং ইয়াবা বিক্রেতা। থানায় অভিযোগ করার পর থেকে সে আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিচ্ছে।

এব্যাপারে জানতে চাইলে ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ জাবেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সাইফুল এলাকার একজন মাদকসেবী, তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ রয়েছে। সে এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে বাঁধা দিতে মাকে আঘাত করে। তাদেরকে আমি আইনগত ব্যবস্থা নিতে পরামর্শ দিয়েছি।

এদিকে অভিযোগ পেয়ে সীতাকুণ্ড মডেল থানার এসআই সাইফুল ইসলাম মঙ্গলবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এব্যাপারে জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন, স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে এক মাদকসেবী তার মাকে জখম করেছে, তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে ফৌজদাহাট কেএম হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম বলেন, শিশু ধর্ষণ চেষ্টাকারীর কোন ছাড় নয় ! আমরা প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি অপরাধীকে গ্রেফতার করে দ্রুত আইনের আওতায় আনতে।

কোন মন্তব্য নেই