মহানগর আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় ড. অনুপম সেন
মহানবী (স.) এর অসাম্প্রদায়িক সমাজ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত করতে চলেছেন শেখ হাসিনা

0
.

প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ বিশ্বের মুক্তিকামী জনতার মুক্তিসনদ। তাই কৃষ্টি সংস্কৃতি রাজনীতিতে এ ভাষণটি পাঠ করলে শোষণের হাত থেকে জাতি নির্বিশেষে মুক্তি পাবে।

তিনি আজ বিকেলে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ঐতিহাসিক ৭ মার্চে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, প্রকৃত সত্য হলো ৭ মার্চের ভাষণ আমাদের স্বাধীনতার নির্দেশনার প্রথম পাঠ। এ ভাষণটি পৃথিবীর ইতিহাসে সাতটি ভাষণের একটি অন্যতম এটি শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে জাতিসংঘে স্বীকৃত হয়েছে।

আমাদের মহানবী (স.) যে অসাম্প্রদায়িক সমাজ ব্যবস্থার স্বপ্ন দেখেছিলেন তা বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত করতে চলেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য অনুপম সেন বলেন, বৈশিষ্ট্যগত ক্ষেত্রে আমাদের ভাষা, সংস্কৃতি, কৃষ্টি এগুলোকে এগিয়ে নিতে হলে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। শিক্ষাকে গণমুখী করতে হবে। আজকের নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর সে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ অনুসরণ করে বাঙালির অধিকার আদায়ে নতুন প্রজন্মকে দেশপ্রেমে অনুপ্রাণিত হতে হবে। আমাদের শিক্ষাকে ত্রিমুখী করণের প্রক্রিয়ার বিকল্প হিসেবে সর্বজনীন করতে হবে।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাষণটি ইতিহাসের মুক্তিকামী জনতার মাইলফলক। আমি ব্যক্তিগতভাবে এ ভাষণটি থেকেই মুক্তির বার্তা ধারণ করেছি। সর্বোতভাবে আমি মনে করি এ ভাষণটি অর্থনৈতিক মুক্তির একটি নির্দেশনা। আমি মেয়র হিসেবে নগরবাসীকে যতটুকু পারি সামর্থ্য অনুযায়ী এবং সরকারের সহযোগিতায় গণমানুষের সার্বিক মঙ্গলে সচেষ্ট আছি এবং থাকব। তিনি দলের আদর্শিক নেতাকর্মীদের জননেত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প বাস্তবায়নে নিজেদের আত্মনিয়োগের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

সভাপতির বক্তব্যে মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন আমরা মহানগর আওয়ামী লীগ দলের দুঃসময়ে ও সংকটে রাজপথে ছিলাম। তাই আমরা রাজপথের কর্মীদের প্রাধান্য দিই। ক্ষমতায় আছি তার মানে এ নই আমরা আত্মতুষ্টিতে ভুগছি। ক্ষমতাকে ধরে রাখার জন্য মানুষের সেবা করা প্রয়োজন।

মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সহ সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, এড. ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী,চন্দন ধর, আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর চৌধুরী, শফিকুল ইসলাম।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন