সীতাকুণ্ড মহিলা কলেজে দিনব্যাপী পিঠা উৎসব

0
.

কামরুল ইসলাম দুলু, সীতাকুণ্ড:
শীতের এমন দিনে গ্রামের বাড়িতে ভোরে গাছিদের খেজুর রস সংগ্রহের এক রকম ধুমপরে যায়। আর খেজুর রস দিয়ে সকালে পিঠা খাওয়ার মজাই আলাদা। এসব গ্রাম্য ঐতিহ্য মাথায় রেখে অন্যান্য বছরের মত এবছরও ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হল সীতাকুণ্ড ঐতিহৃবাহী সরকারি মহিলা কলেজে পিঠা উৎসব অনুষ্ঠান।

আজ বুধবার সকাল ১১টায় কলেজ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উৎসবে শিক্ষার্থী ও দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ঢল লক্ষ্য করা গেছে। সকাল ১১টায় অনুষ্ঠান আরম্ভ হলেও সকাল ৯টা থেকে শিক্ষার্থীরা ঘরে তৈরী নানা রকম সাজে পিঠা নিয়ে দলে দলে কলেজ প্রাঙ্গনে এসে হাজির হয়।

পিঠা উৎসব পরিদর্শন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়।

উৎসবে উপস্থিত ছিলেন, সীতাকুণ্ড সরকারি মহিলা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ দিদারুল আলম,সীতাকুণ্ড বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ দিদারুল আলম জাহাঙ্গীর,কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ মহিউদ্দীন, সিনিয়র প্রভাষক বনানী দত্ত, সুকদেব রুদ্র,সেলিনা বেগম, সেলিনা আক্তার, নাজলী শফিক, মোঃ শাহজাহান, শামীমা নার্গিস, মোঃ ইমাম হোসাইন ও মোহাম্মদ সিরাজ উদ্দিন।

পিঠা উৎসবে প্রায় ৬০টিরও বেশি পিঠা স্টলে অন্তত ৪০ রকমের নতুন নতুন পিঠা উপস্থাপন করা হয়।

সকাল থেকে শুরু হওয়া উৎসবে ভাপা পিঠা,পুলি পিঠা, সার্স,অন্থন,নার্কেল বর, শীতল, পাটি সপ্তা,ফুল পিঠা,চিতল পিঠাসহ আরো অন্যান্য পিঠা অনুষ্ঠানে উপস্থাপন করা হয়।এ ছাড়াও দৃষ্টিনন্দন প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র নজর কাড়ে উপস্থিত দর্শশানার্থীদের।

এদিকে পরিদর্শন শেষে প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন,সীতাকুণ্ড সরকারী মহিলা কলেজের আয়োজনে প্রতিবছর শীত মৌসুমে পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। এটি অনেক ভাল দিক, তারা গ্রাম্য ঐতিহ্য সবার মাঝে তোলে ধরেছে এবং নানারকম পিঠা তৈরী করে খুব সুন্দর ভাবেই উপস্থাপন করছে।

কোন মন্তব্য নেই