ট্রাক-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে পুলিশের এসআই নিহত

0
.

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ট্রাক-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিল্টন সরকার (৩০) নিহত হয়েছেন।

আজ রবিবার রাত পৌনে দশটার দিকে উপজেলার ওদুদ শাহ ডিগ্রী কলেজের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মিল্টন সরকার ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার রানপাশা গ্রামের সুভাষ চন্দ্র সরকারের ছেলে। তিনি দামুড়হুদা মডেল থানায় উপ-পরিদর্শক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাতে নিয়মিত টহল ডিউটি পালনের জন্য মোটরসাইকেলযোগে দর্শনার দিকে দিকে যাচ্ছিল এসআই মিল্টন সরকার ও কনস্টেবল দীপক। এ সময় উপজেলা শহরের ওদুদ শাহ কলেজের নিকট পৌছালে উল্টো দিক থেকে আসা একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাকে ধাক্কা দেয়। ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন মিল্টন সরকার।

মিল্টনের মোটরসাইকেলের পিছনে থাকা আরোহী কনস্টেবল দীপক জানান, থানা থেকে বের হয়ে উপজেলা শহরের ওদুদ শাহ কলেজের নিকট পৌছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুত গতির ট্রাক সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে সড়কের উপরেই ছিটকে পড়ে মিল্টন সরকার। দ্রুতগামি ট্রাকটি এসময় পালানোর চেষ্টা করলে সামনের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন মিল্টন সরকার।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আব্দুল খালেক জানান, রোববার রাতে নিয়মিত টহল ডিউটির জন্য নিজ মোটরসাইকেলযোগে থানা থেকে বের হয় মিল্টন সরকার ও কনস্টেবল দীপক। কিছুক্ষণ পরে সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ সদস্যরা পৌঁছায়। কিন্তু সেখানে যেয়ে তাকে আর জীবিত পাওয়া যায়নি। ঘটনার পর থেকে ঘাতক ট্রাক ও ট্রাক চালক পলাতক রয়েছেন।

পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জানান, ২০১৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ পুলিশে উপ পরিদর্শক পদে যোগদান করেন মিল্টন সরকার। তার পিতাও বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর একজন গর্বিত সদস্য। তার বিপি নং- ৮৬১৩১৫১৪১৫। ট্রাকটি আটকের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

কোন মন্তব্য নেই