অটোরিক্সা নিয়ে গেছে পুলিশ, অভিমানে দরিদ্র যুবকের আত্মহত্যা

0
.

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:
জেলার সীতাকুণ্ডে পারিবারিক কলহের জের ধরে শামীম (৪০) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।আজ মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার ভাটিয়ারী ইউনিয়নের পূর্ব হাসনাবাদ এলাকার সেনারজি বাগান বাড়ি পাহাড়ের টিলার উপর নিজ ঘরে এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার এসআই সুজায়েত লাশটি উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। নিহত শামীম পেশায় একজন অটোরিক্সা চালক। তার স্ত্রী রোশা জানান,গত শনিবার তার স্বামী শামীম অটোরিকশা নিয়ে ভাটিয়ারী ষ্টেশন এলাকায় দাঁড়িয়ে ছিল। ওই সময় বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার পুলিশ তার অটো রিক্সাটি নিয়ে যায়। এরপর সে বেকার হয়ে পড়ে। ঘরে অভাব-অনটনের কারণে ঝাগড়া লেগে থাকতো। মঙ্গলবার দুপুরে স্ত্রী ও ছেলে-মেয়ের সাথে অভিমান করে ঘরের সিলিং এর সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

স্ত্রী রোশা আরো বলেন, আমি পানি আনতে বাইরে গেলে ঘরে এসে দেখি সে ফাঁসিতে ঝুলে আছে। বিষয়টি আশপাশের লোকজনকে জানালে তারা শামীমকে উদ্ধার করে স্থানীয় বিএসবিএ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শামীম নোয়াখালীর হাতিয়ার মৃত আবদুল জলিলের পুত্র। তারা দীর্ঘদিন ধরে ভাটিয়ারী এলাকায় পাহাড়ের টিলার উপর ঘর তৈরি করে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছেন।

কোন মন্তব্য নেই