৫ মে পর্যন্ত ছুটি বেড়েছে

সীমিত পরিসরে সপ্তাহে দুই দিন চালু থাকবে আদালত

0
.

করোনাভাইরাসের কারণে আগামী ৫ মে পর্যন্ত ঘোষিত ছুটির মধ্যে প্রত্যেক জেলা ও দায়রা জজ এবং মহানগর এলাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতকে সুবিধামতো প্রতি সপ্তাহের যে কোনো দুই দিন কঠোরভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জরুরি জামিন শুনানির নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

পাশাপাশি ছুটিকালীন সময়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে চেম্বার কোর্ট ও হাইকোর্ট বিভাগের একটি বেঞ্চ অতীব জরুরি বিষয়গুলো নিয়ে শুনানি ও নিষ্পত্তিতে বসবেন।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতির আদেশক্রমে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্টার জেনারেল আলী আকবর স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কঠোর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অতীব জরুরি বিষয়গুলো শুনানির নিমিত্তে ছুটিকালীন সময়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্টে বসবেন।

আর হাইকোর্ট বিভাগে বিচারপতি ওবায়দুল হাসান সব অধিক ক্ষেত্রের অতীব জরুরি বিষয়গুলো শুনানির নিমিত্তে হাইকোর্ট বিভাগের কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। আদালত পরিচালনার কর্মপন্থা নির্ধারণ এবং কঠোরভাবে সামাজিক দূরত্ব অনুসরণের নিয়ম-কানুনের বিষয়ে বিচারপতিরা প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেবেন।

করোনার কারণে ২৬ মার্চ থেকে সরকারি আদেশের সঙ্গে মিল রেখে আদালত অঙ্গণও বন্ধ রয়েছে। শুধু জরুরি প্রয়োজনে প্রত্যেক জেলায় একটি করে ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট চালু রাখা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই