ঘটনাস্থল হাটহাজারী

স্বামীকে হত্যার চেষ্টা, স্ত্রীর শ্লীলতাহানির আসামী গ্রেফতার করছে না পুলিশ

0
.

করোনা মহামারির মাঝেও চট্টগ্রাম হাটহাজারীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে একজনকে হত্যার চেষ্টা এবং তার স্ত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় হাটহাজারী মডেল থানায় মামলা (নং-২৪) দায়ের করা হলেও পুলিশ অভিযুক্ত ৩ ভাইকে গ্রেফতার করেনি।

ফলে আসামীরা মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ আলম বলেন, হত্যার প্রচেষ্টা ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আমরা একজন উপ-পরিদর্শককে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনের আলোকে আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

.

মামলার এজহার সূত্র জানা গেছে, ২৪ এপ্রিল দুপুর ১২টা আগ মুহুর্তে হাটহাজারী পশ্চিম ধলইয়ের জাফর খান চৌধুরী বাড়ী প্রকাশ খন্ডল বাড়ীতে মো. জানে আলম (৩৫) এর সাথে মৃত শফিউল আলমের তিন পুত্র মো. ফরহাদ উদ্দিন (৩০), মো. আজাদ (২৭) ও মো. আরাফাত উদ্দিন (৩৫) দের সাথে দ্বন্দ চলে আসছিল। দ্বন্দের জের ধরে তিন ভাই ও তার অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনের একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মো. জানে আলমকে হত্যার চেষ্টা চালায়। একইসাথে তার স্ত্রী নার্গিস আক্তারের শ্লীলতাহানি করে তারা।

জানে আলম ও তার স্ত্রীর শোর চিৎকারে বিভিন্ন লোকজন তাদের উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে তিন ভাই তাদের সন্ত্রাসী দল নিয়ে পরবর্তীতে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায়।

গুরুতর আহত জানে আলমকে লোকজন উদ্ধার করে হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানে আলমের গুরুতর অবস্থায় থাকায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। চার দিনপর চিকিৎসা শেষে জানে আলম হাটহাজারী থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-পরিদর্শক আনিস আল মাহমুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আসার পর ১ মে মামলায় অভিযুক্তরা জানে আলমকে আবারো হুমকি দেয়ার পর তিনি থানা আরেকটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

জানে আলম বলেন, আমি জীবননাশের শঙ্কায় আছি। তাই থানায় মামলা করেছি।

অভিযুক্ত তিন ভাইয়ের সবার বড় আরাফাত উদ্দিন বলেন, জানে আলম থানায় অভিযোগ করেছে শুনেছি। অভিযোগ করলেতো প্রমাণও করতে হবে। তবে আরাফাত হামলার ঘটনা এড়িয়ে গেলেও অস্বীকার করেননি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আনিস আল মাহমুদ বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ওখানে কিছু ঝামেলা আছে। করোনা পরিস্থিতিতে হাটহাজারী উপজেলা লকডাউন আছে। উভয় পক্ষ যেহেতু প্রতিবেশী, তাদের বলে আসছি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে বসে সমাধান করা হবে।

কোন মন্তব্য নেই