কর্মহীন পরিবারের জন্য ত্রাণ হস্তান্তর

লকডাউন তুলে দিয়ে দেশকে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির দিকে ফেলে দিচ্ছে সরকার- ব্ক্কর

0
.

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেছেন, মানুষের জীবন আগে না জীবিকা আগে? রাষ্ট্রের দায়িত্ব সংকটকালীন সময়ে সাধারণ মানুষের জীবন রক্ষার্থে জীবিকার ব্যবস্থা করা। সরকার সে দায়িত্ব পালনে সম্পূর্ণ ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। লকডাউন তুলে দিয়ে দেশকে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির দিকে ফেলে দিচ্ছে সরকার।

তিনি বৃৃহস্পতিবার (৭ মে) নগরীর এনায়েত বাজার বাটালী রোডস্থ নিজ বাসভবন থেকে নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে করোনা দূর্যোগে কর্মহীন জনগোষ্ঠী ও বিএনপি নেতাকর্মীদের জন্য ত্রাণ সামগ্রী ওয়ার্ড বিএনপির নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তরকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আবুল হাসেম বক্কর বলেন- মানুষের ঘরে খাবার নাই, খাবারের জন্য বিক্ষোভ করছে। তাই সরকার বাধ্য হয়ে গার্মেন্টস, কলকারখানা, দোকানপাট, শপিংমল খুলে দিয়েছে। এর অর্থ মানুষ তার জীবিকা নিজে জোগাড় করুক। রাষ্ট্রের দায়িত্ব বলতে কিছুই নাই। সরকারের অবস্থাদৃষ্টে মনে হয়ে দেশে করোনা কোন সমস্যা না, সবকিছু নিয়ন্ত্রণে আছে। এইটাই আওয়ামী লীগ সরকারের চরিত্র। দেশের সকল দূর্যোগকালীন সময়ে তারা জনগণকে ঝুঁকিতে ফেলে তারা নিরাপদ দূরত্বে চলে যায়।

তিনি আরো বলেন, করোনা দূর্যোগের সবচেয়ে গুরুতর সময়ে এসে সরকার লকডাউন শিথিল করে গণহারে করোনাভাইরাস সংক্রমণের পথ খুলে দিয়েছে। ভয়ানক এই সিদ্ধান্তের পরিণতির জন্য আওয়ামী লীগ সরকারই দায়ী থাকতে হবে। বিনা ভোটে সরকার গঠন করার কারণে আওয়ামী লীগ জনগণের কাছে কোনো জবাবদিহিতা নেই, যার কারণে লকডাউন তুলে দিয়ে দেশকে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

ত্রাণ বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন এনায়েত বাজার ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আলী আব্বাস খান, সাধারণ সম্পাদক জাহেদ উল্লাহ রাশেদ, পাঠানটুলি ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি জামাল উদ্দীন জসিম, সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া, নগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলী মূর্তজা খান, নগর স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাজ্জাদ হোসেন খান প্রমুখ।

কোন মন্তব্য নেই