চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ৮৭ জন

“পাঠক ডট নিউজ” সম্পাদক করোনায় আক্রান্ত

0
.

চট্টগ্রামে কোভিড-১৯-তে প্রথম একজন সাংবাদিক আক্রান্ত হয়েছেন তিনি হলেন, পাঠক ডট নিউজ এর সম্পাদক ও বার্তা সংস্থা ইউএনবি (ইউনাইটেড নিউজ অব বাংলাদেশ) চট্টগ্রাম প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম শিল্পী।

প্রচন্ড জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে তিনি গত ৫/৬ দিন ধরে ভোগছিলেন। গত ১০ মে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে করোনাভাইরাস পরিক্ষার জন্য সেম্পল দিয়ে আসেন। পরে আজ মঙ্গলবার রাতে সিভিল সার্জন অফিস থেকে তার রিপোর্ট পজেটিভ বলে জানানো হয়।

জেলা সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি পাঠক ডট নিউজকে বলেন- সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম শিল্পী করোনাভাইরাস রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। আমরা তার এবং তার পরিবারের খবরা খবর নিচ্ছি। প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছি। সাংবাদিক পরিবারে অন্যান্য সদস্যদের বরোনা পরিক্ষার ব্যবস্থা নেবো।

চট্টগ্রামের ৪ ল্যাবে ৮৭ জন নতুন সনাক্তঃ

চট্টগ্রামের ৪টি ল্যাবে করোনা পরীক্ষায় মোট ৮৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

মঙ্গলবার রাতে সিভিল সার্জন অফিস ও বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অফিস থেকে এ তথ্য দেয়া হয়। যে সব ল্যাবের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে সেগুলো হচ্ছে চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডি, সিভাসু ও চমেক হাসপাতাল। এসব ল্যাবে ৪৪০ টি নমুনা পরীক্ষা করে ৮৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এই সংখ্যা এ যাবত চট্টগ্রামে নতুন আক্রান্তের সর্বোচ্চ। একজন পুরাতন রোগীর নমুুুনা ২য় পজিটিভ আসায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ৮৬ জন।

মঙ্গলবার বিআইটিআইডি’তে ২৪৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে। নতুন শনাক্ত হওয়া রোগীর মধ্যে ২৭ জন চট্টগ্রামের। নতুন শনাক্ত হওয়া ২৭ জনের মধ্যে ২৫ জন চট্টগ্রাম মহানগরের বাসিন্দা। ২ জন উপজেলার বাসিন্দা।

এছাড়া সিভাসু ল্যাবে ৭০টি নমুনা পরীক্ষা করে ২০ টি নমুনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এদের ২ জন চট্টগ্রাম নগরীর বাসিন্দা।

চমেক ল্যাবে ১২২ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয় গেল ২৪ ঘন্টায়। এর মধ্যে ৫৪ জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এর মধ্যে একটি নমুনা ২য় বার পজিটিভ। অন্য একটি পজিটিভ নমুনা কক্সবাজারের।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৩৯ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে জেলার আরো ৫ জনের নমুনা পজিটিভ।

নতুন আক্রান্ত হওয়া ৮৬ জন নিয়ে চট্টগ্রামে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪১৯ জনে।

মঙ্গলবার (১২ মে) রাতে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, তিনটি ল্যাবে সর্বমোট ৩৯৫ টি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রামের ৮৬ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে।

চট্টগ্রামে বর্তমানে ফৌজদারহাটস্থ বিআইটিআইডি,ভেটেইনারী বিশ্ববিদ্যালয় ( সিভাসু), চমেক ল্যাব, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজসহ চারটি ল্যাবে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। গতকাল সোমবার একদিনেই চট্টগ্রামে ৬৫ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়েছে।

এখন পর্যন্ত আক্রান্তের ২৮২ চট্টগ্রাম নগরীর বাসিন্দা। এছাড়া ১২৬ জন চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

তিনি জানান, চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে একদিনেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন আরও ৩ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৭০ জন। মঙ্গলবার জেনারেল হাসপাতালে দুইজন আক্রান্ত রোগী মৃত্যুবরন করেছে।

এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত করে মৃত্যুবরন করেছে চট্টগ্রামের ২৩ জন। চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার (১২ মে) দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। এদের একজন পাঁচদিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। আরেক নারীকে হাসপাতালে আনার পরই মৃত্যু হয়।

মঙ্গলবার (১২ মে) দুই ঘণ্টার ব্যবধানে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে এ দুইজনের মৃত্যু হলো।

মৃত দু’জনের মধ্যে ৩২ বছর বয়সী এক নারীর বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায়। ৬০ বছর বয়সী আরেক নারীর বাড়ি চট্টগ্রাম নগরীর ইপিজেড এলাকায়।

বর্তমানে আইসোলেশনে রয়েছেন ৯৪ জন। এছাড়া হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ২৩৮ জন ।

কোন মন্তব্য নেই