খাগড়াছড়িতে ত্রিপুরা তরুণীর সঙ্গে প্রেম নিয়ে ‘সন্দেহে’ পল্লী চিকিৎসক খুন

0
উপরে- নিহত পল্লী চিকিৎসক নুর মোহাম্মদ টিপু। নীচে গ্রেফতার হওয়া উপজাতী যুবকরা।

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় গত ২৪ জুলাই বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পল্লী চিকিৎসক নুর মোহাম্মদ টিপুকে হত্যা করা হয়। ত্রিপুরা নৃগোষ্ঠীর একটি মেয়ের সঙ্গে প্রেম নিয়ে ‘সন্দেহে’ ওই পল্লী চিকিৎসককে খুন করা হয় বলে পুলিশের ধারণা।

এদিকে অভিযান চালিয়ে এ হত্যা মামলায় ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ রবিবার ও শনিবার বিকালে মাটিরাঙ্গা ও গুইমারা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হল- শান্তি ত্রিপুরা, সুমন ত্রিপুরা, ডেনী ত্রিপুরা, দীপন ত্রিপুরা, স্বপন ত্রিপুরা ও নিপন ত্রিপুরা। তাদের সবার বাড়ি মাটিরাঙ্গায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাটিরাঙ্গা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহনুর আলম জানান, পল্লী চিকিৎসক নুর মোহাম্মদের সঙ্গে ত্রিপুরা এক মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক আছে এমন সন্দেহ ছিল নিপন ত্রিপুরার। সন্দেহ থেকে ২৪ জুলাই ভোরে বাড়ি থেকে প্রসূতি রোগীকে চিকিৎসা দেয়ার কথা বলে নুর মোহাম্মদকে ডেকে নিয়ে যায় নিপন ত্রিপুরা। পরে তার নেতৃত্বে অপর ৬ সহযোগী নুর মোহাম্মদকে মিলে হত্যা করে লাশ সাপমারা সেতুর নিচে ফেলে পালিয়ে যায়।

মাটিরাঙ্গা থানার ওসি সামসুদ্দিন ভূঁইয়া জানান, গোয়েন্দা তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহার করে নুর মোহাম্মদ হত্যা মামলার ৭ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই