শফীর জানাযাকে কেন্দ্র করে আইন শৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কা

হাটহাজারীসহ ৪ উপজেলায় ৭ ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন

0
হাটহাজারী মাদ্রায় ছাত্র বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশ মাদ্রাসা ঘিরে রাখে। ফাইল ছবি।

হেফাজতে ইসলামের আমীর ও হাটহাজারী আল-জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসা থেকে পদত্যাগকারী মহাসচিব আল্লামা আহমদ সফীর মৃত্যুর পর আজ শনিবার অনুষ্ঠিতব্য নামাজে জানাযা এবং হাটহাজারী মাদ্রাসাকে বন্ধ ঘোষনাকে কেন্দ্র করে যে কোন ধরণের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় চট্টগ্রামের ৪উপজেলায় ব্যাপক সর্তকরতা এবং অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করেছে জেলা প্রশাসন।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন সুত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

.

এ ছাড়া আজ শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে হাটহাজারী, ফটিকছড়ি, রাঙ্গুনিয়া ও পটিয়ায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ৭জন ম্যাজিষ্ট্রেট নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে হাটহাজারীতে ৪জন ম্যাজিষ্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। অন্য ৩ উপজেলায় অতিরিক্ত একজন করে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

হাটহাজারীতে যে চারজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে তারা হলেন হাটহাজারীর সহকারী কমিশনার (ভূমি) শরীফ উল্লাহ, আগ্রাবাদ সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবদুস সামাদ শিকদার, চান্দগাঁও সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মামনুন আহমেদ অনীক এবং চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার মো. উমর ফারুক।

এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় দায়িত্ব পালন করছেন রাঙ্গুনিয়ার নির্বাহী সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফখরুল ইসলাম, পটিয়ায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ ইনামুল হাছান এবং ফটিকছড়িতে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার গালিব চৌধুরী।

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার মো. উমর ফারুক জানান, হাটহাজারী মাদ্রাসায় ছাত্র বিক্ষোভ ও মাদ্রাসা বন্ধের রেশ ধরে অপ্রীতিকর যে কোন পরিস্থিতি আশঙ্কায় এবং পরিস্থিত স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত নিরাপত্তা নেয়া হয়েছে।  চার উপজেলায় ৭জন ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশের সাথে ২০ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাব সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবে। তিনি বলেন,সাধারণ মানুষের জান-মালের নিরাপত্তায় সব ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই