বেনাপোল কাস্টমসে যুগ্ম কমিশনারের বরখাস্ত চেয়ে বিক্ষোভ

0
.

বেনাপোল (যশোর)প্রতিনিধিঃ

ঢাকার কেরানীগঞ্জের পানগাঁও কাস্টম হাউসের এক সিনিয়র রাজস্ব কর্মকর্তাকে মারধর, হেনস্থা ও লাঞ্ছিত করার অভিযোগে পানগাঁও কাস্টম হাউসের যুগ্ম কমিশনার মোঃ লুৎফুল কবিরকে বরখাস্তের দাবিতে বেনাপোল কাষ্টমস হাউসে বিক্ষোভ করেছে

বাংলাদেশ কাস্টমস ভ্যাট অ্যান্ড এক্সিকিউটিভ অ্যাসোসিয়েশন (বাকাএভ) ও খুলনা কাস্টমস ভ্যাট অ্যান্ড এক্সিকিউটিভ অ্যাসোসিয়েশন (খুকাএভ)।

আজ সোমবার (৩০শে নভেম্বর) সকাল ৯টা থেকে কাজ বন্ধ রেখে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বেনাপোল কাস্টম হাউসের ভিতরে বিক্ষোভ করেন সংগঠনের নেতা কর্মিরা।

কাস্টমস কর্মকর্তারা জানায়, গত ২৫শে নভেম্বর পানগাঁও কাস্টম হাউসের যুগ্ম কমিশনার মোঃ লুৎফুল কবিরের নিজ কক্ষে সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তাদের সামনে এক রাজস্ব কর্মকর্তাকে মারধর ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এরপর থেকে সারাদেশের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও রাজস্ব কর্মকর্তাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। একটি ফাইলের বিষয়ে অনৈতিক দাবি ছিল যুগ্ম কমিশনার মোঃ লুৎফুল কবিরের। কিন্তু ওই রাজস্ব কর্মকর্তা সেটির বিরোধিতা করায় তাকে ডেকে নিয়ে মারধর করা হয়।

তারা আর বলেন,অভিযুক্ত যুগ্ম কমিশনার শুধু কাস্টম হাউস পানগাঁও নয় এর আগে যেসব কর্মস্থলে কর্মরত ছিলেন সেখানেও কর্মকর্তা-কর্মচারী এমনকি স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গেও খারাপ ব্যবহার করেছেন। নানাবিধ অভিযোগে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা থাকলেও অদৃশ্য কারণে সেসব অভিযোগের তদন্ত আলোর মুখ দেখেনি। ঘটনার পাঁচদিন অতিবাহিত হলেও এখনও যুগ্ম কমিশনারকে বরখাস্ত করা হয়নি। তাকে আমরা বরখাস্ত করার দাবি করছি। তা না হলে সকল ভ্যাট সার্কেল, কাস্টমস হাউস ও শুল্ক ষ্টেশনে কাজ বন্ধসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বেনাপোল কাস্টমের রাজস্ব কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, সাইদুল ইসলাম, স্বপন কুমার দাস, দেলোয়ার হোসেন, মিজানুর রহমান, আশরাফুল আলম, শফিকুর রহমান সহ দুই শতাধিক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

কোন মন্তব্য নেই