সালিশের মাধ্যমে বিয়ে দেওয়া বেআইনি: হাইকোর্ট

0
.

বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ মামলার ৩ আসামিকে বিয়ের শর্তে দেয়া জামিন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন হাইকোর্টের আরেকটি বেঞ্চ। বুধবার ধর্ষণ নিয়ে মামলায় পুলিশ সদর দপ্তরের দেয়া প্রতিবেদনের শুনানিতে এ প্রশ্ন তোলেন হাইকোর্ট। আদালত বলেন, সালিশের মাধ্যমে বিয়ের যে ঘটনা তা বেআইনি।

১৮০ দিনের মধ্যে ধর্ষণ মামলা নিষ্পত্তি কেনো হচ্ছে না, তা তদারকি করতে গত বছর অক্টোবরে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। চাওয়া হয় মামলার সবশেষ তথ্য।

বুধবার ধর্ষণ নিয়ে গত পাঁচবছরের একটি প্রতিবেদন হাইকোর্টে দাখিল করে পুলিশ সদর দপ্তর। এতে বলা হয় গত ৫ বছরে ধর্ষণের মামলা হয়েছে ২৬ হাজার ৬৯৫ টি। ২০২০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত ধর্ষণ মামলা হয়েছে ৬ হাজার ২২০ টি। করোনা মহামারীতেও বন্ধ ছিলো না ধর্ষণের ঘটনা।

গত সোমবার ধর্ষিতাকে বিয়ের শর্তে ধর্ষকের জামিন দেন ভারতের সুপ্রমি কোর্ট। এর আগেও এমন নজির স্থাপন করেন দেশটির আদালত। বাংলাদেশের হাইকার্টের একটি বেঞ্চও গত তিন মাসে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের মামলায় বিয়ের শর্তে তিন জনকে জামিন দেন।

তবে এসব জামিন নিয়ে এবার প্রশ্ন তুললেন হাইকোর্টের আরেকটি বেঞ্চ। আদালতের জবাব, সালিশের মাধ্যমে বিয়ে দেয়া বেআইনী। একই বিষয়ে প্রশ্ন তোলেন আইন ও সালিশ কেন্দ্রও। ধর্ষণের মামলা ১৮০ কার্যদিবসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি করেছেন সুপ্রিম কোর্ট।

কোন মন্তব্য নেই