বসুরহাটে হচ্ছেটা কী; প্রশ্ন হাইকোর্টের

0
.

নোয়াখালীর বসুরহাটে আওয়ামী লীগের বিরোধে সংঘাতময় রাজনীতি নিয়ে এবার প্রশ্ন তুলেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, কী হচ্ছে সেখানে। দুপুরে বসুরহাটের শতাধিক আসামী জামিন নিতে আসলে আদালত সব শুনে ১০৭ জনকে জামিন দেন। তবে জামিন নিয়ে কাদের মির্জাকে একহাত নেন স্থানীয় রাজনীতিকরা। বলেন, কাদের মির্জা একজন মানসিক রোগী।

গেলো কয়েক মাস ধরেই অশান্ত হয়ে আছে নোয়াখালীর বসুরহাট। কোম্পানিগঞ্জের ত্রিমুখী রাজনীতি সবকিছু ছাপিয়ে সারাদেশের আলোচনার কেন্দ্রে পরিনত হয়। স্থানীয় এ রাজনীতির বলি হন সাধারন দুজন মানুষ। আহত হন অনেকেই।

বসুরহাট পৌরসভায় হামলায় ও ভাঙচুরের ঘটনায় বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে চার মামলায় জামিন চাইতে আসেন ১০০ জনের বেশি। সব শুনে বসুরহাটের রাজনীতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন আদালত। একটি সভ্য জনপদে এসব চলতে পারে না। পরে ৪ মামলায় ১০৭ জনকে জামিন দেন আদালত।

জামিন পাওয়ার পর স্থানীয় রাজনীতিকরা বলেন, কাদের মির্জা একজন মানসিক রোগী। তার রাজনীতির বলি হয়ে বসুরহাটে চলছে মামলা-হামলা।

বসুরহাটের ঘটনায় গ্রেপ্তার আছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদল।  সূত্র: চ্যানেল ২৪

কোন মন্তব্য নেই