রেডিসন ব্লু কাঁপালো ঢাকা-চট্টগ্রামের মডেলরা

0
004
.

এ যেনো এক অন্যরকম আলোর বন্যা, রূপের ঝলকানি, বলরুম ভর্তি হাজারো দর্শক মন্ত্রমুগ্ধ উপভোগ্য দৃষ্টি। চট্টগ্রামের রেডিসন ব্লু বে ভিউ হোটেলের মেজবান হল এবং মোহনা হলে ওয়েডিং-এক্সপো উপলক্ষ্যে অন্যরকম এক ফ্যাশন প্যারেডের আয়োজন।

0013-1
.

চট্টগ্রামের বিখ্যাত ব্র্যান্ড বিউটি সেলুন হাবিব তাজকিরাজের অসাধারণ মেকওভারে ঢাকা ও চট্টগ্রামে অর্ধশতাধিক মডেল রীতিমত রেডিসন ব্লু হোটেল কাঁপিয়ে তুলেছিলেন।

বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার এই দুই দিনের বর্ণিল আয়োজনে চট্টগ্রামের প্রায় ৩০ হাজার দর্শক এই ওয়েডিং এক্সপোতে অংশ নেন। দুই দিনেই বিকেলে রেডিসনের মেজবান হলে অনুষ্ঠিত হয় ফ্যাশন কিউ। শেষ দিন শুক্রবার রাতে রেডিসনের মোহনা হলে অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা ও চট্টগ্রামের তারকা মডেলদের অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত হয় এক্সক্লুসিভ জমকালো ফ্যাশন প্যারেড এবং গানের আয়োজন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রেডিসনের মোহনা হলে আয়োজিত ফ্যাশন প্যারেডটি ছিলো চট্টগ্রামের সবচেয়ে বৃহদ বর্ণাঢ্য এবং আলো ঝলমলে বর্ণিল আয়োজন। বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিতরাই এই আয়োজনে দর্শক হওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। এই ব্যতিক্রমি ফ্যাশন প্যারেডে অংশ নেন ঢাকা ও চট্টগ্রামের আলোচিত বিখ্যাত তারকা মডেলরা।

এদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন ঢাকার তারকা মডেল আজরা, চলচিত্র নায়িকা ও মডেল নিপুন চট্টগ্রামের তারকা মডেল সিদ্দিকা তিশা। হাবিব তাজকিরাজ-এর মেকওভারে প্রতিটি মডেল যেনো হয়ে উঠেছিলো স্বর্গ থেকে নেমে আসা পরী। চট্টগ্রামের তুষার হোসেনসহ ঢাকা ও চট্টগ্রামের কোরিওগ্রাফারদের মন মাতানো কোরিওগ্রাফীতে মডেলরা প্রায় ১০টি ফ্যাশন কিউতে অংশ নেন। প্রতিটি কিউ ছিলো বিয়ে আয়োজনের নানা আনুষ্ঠানিকতা আর অনুষঙ্গ নিয়ে। ফ্যাশন কিউ’র ফাঁকে পর পর তিনটি গান পরিবেশন করে দর্শকদের মুগ্ধ করে ক্লোজ আপ তারকা পুতুল।

dsc_0366
.

উল্লেখ, বৃহস্পতিবার সকালে রেডিসন হোটেলে আনুষ্ঠানিকভাবে ওয়েডিং এক্সপো-২০১৬ উদ্বোধন করেন আরটিভি’র চেয়ারম্যান মোরশেদ আলম এমপি, বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক আজাদীর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ওয়াহিদ মালেক, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনি, ওয়েডিং এক্সপোর মেকওভার স্পন্সর প্রতিষ্ঠান হাবিব তাজকিরাজ এবং দি এক্সসেপশনস লিঃ এর চেয়ারম্যান সৈয়দ রুম্মান আহাম্মেদ, রেডিসন ব্লু বে ভিউ’র জেনারেল ম্যানেজার রবিন এডওয়ার্ড, মেলার ইভেন্ট ভায়োলেট ইন কর্পোরেট-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবিএম খালেদ মাহমুদ প্রমুখ।

15202676_1166141213439738_6464991470933195145_n
.

শো এর নেপথ্যে যারা ছিলেন: মোহনা হলে এক্সক্লুসিভ ফ্যাশন প্যারেডের কোরিও্গ্রাফার ছিলেন সানজিতা হক আরেফিন লুনা। পুরো শো-এর স্টাইলিং ও কো-অর্ডিনেশনে ছিলেন চট্টগ্রামের বিখ্যাত কোরিও্গ্রাফার সালেহ রবিন জন। মেজবান হলের শো কোরিওগ্রাফার ছিলেন তুষার হোসেন। মোহনা হলের এক্সক্লুসিভ র‌্যাম্পে অংশ নেন দেশের বিখ্যাত তারকা মডেল ইমি, হিরা, মিলি, বিট সুন্দরী মিথিলা।

চট্টগ্রামের খ্যাতনামা মডেলদের মধ্যে ছিলেন সিদ্দিকা তিশা এবং মিমি। ছেলে মডেলের মধ্যে ছিলন, রিপন দাউদ, রাব্বি ও রাজ। ফ্যাশন প্যারেডে যে সব নামকরা ব্র্যান্ড অংশগ্রহণ করে এর মধ্যে রয়েছে চট্টগ্রামের মিয়া বিবি, কৃষ্টি বুটিক, ঢাকার বিখ্যাত ডিজাইনার সারাহ করিম, তাহুর ও জেডএন্ডজেড। মূল শো এর পর্দ উঠেছিল মুম্বাই এর বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার কোমল সুদ ও রাতুল সুদের ডিজাইন করা কাপড়ের পর্দশনীর মাধ্যমে। পর্দা নেমেছ চট্টগ্রামের বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার ফারজানা মালিকের ফ্যাশন ডিজাইনের করা কাপড়ের পদর্শনীতে। শো-এর ফটোগ্রাফিতে ছিলো ডমিনেট ফটোগ্রাফি।

কোন মন্তব্য নেই