৭ম এশিয়া-প্যাসিফিক লোকাল চেম্বার এ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে চিটাগাং চেম্বার

0
photocacci
.

৭ম লোকাল চেম্বার এ্যাওয়ার্ড (বিগ চেম্বার ক্যাটাগরি) অর্জন করেছে ঐতিহ্যবাহী ব্যবসায়ী সংগঠন দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি।

চেম্বারের সম্মানিত সদস্য ও ব্যবসায়ী সমাজের প্রতি প্রদত্ত সেবা এবং সিএসিসিআই এর কর্মকান্ড ও প্রকল্পে অংশগ্রহণের ভিত্তিতে অসামান্য অবদানের জন্য চট্টগ্রাম চেম্বারকে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

সম্প্রতি কনফেডারেশন অব এশিয়া-প্যাসিফিক চেম্বার্স অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি (সিএসিসিআই)’র ৩০তম কনফারেন্সে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

তাইওয়ানের রাজধানী তাইপে-তে অনুষ্ঠিত কনফারেন্সে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ২৭ টি দেশের নেতৃস্থানীয় চেম্বারদের এ সংগঠন এ বছর এশিয়া অংশীদারিত্বের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন করছে।

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম উক্ত কনফারেন্সে “ডিসকভারিং বিজনেস অপরচ্যুনিটিজ থ্রু সিএসিসিআই”-পার্ট ১ সেশনে স্পিকার হিসেবে তথ্যবহুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন এবং একজন সফল ব্যবসায়ী হিসেবে প্রশংসাপত্র লাভ করেন।

উক্ত সেশনে তিনি এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের পারস্পরিক সহযোগিতা ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির উপর গুরুত্বারোপ করেন। চিটাগাং চেম্বার সভাপতিকে পুরস্কার দু’টি প্রদান করেন সিএসিসিআই প্রেসিডেন্ট জেমাল ইনাইশভিলি (Jemal Inaishvili) এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রদীপ কুমার শ্রেষ্ঠা (Pradeep Kumar Shrestha)।

মাহবুবুল আলম পুরস্কার প্রাপ্তির পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন-দেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় ব্যবসা ও বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে চিটাগাং চেম্বারের সহায়ক ও পরামর্শক ভূমিকা আজ বিশ্ব দরবারে স্বীকৃতি লাভ করেছে। তিনি এই অর্জনকে চেম্বার সদস্যবৃন্দ তথা এতদঞ্চলের ব্যবসায়ী সমাজের অবদান বলে উল্লেখ করে এ পুরস্কার আগামী দিনগুলোতে ব্যবসায়ীদের কল্যাণে চেম্বারকে আরো অগ্রণী ভূমিকা পালনে উৎসাহ যোগাবে বলে মনে করেন।

অনুষ্ঠানে রিপাবলিক অব তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন, প্রধানমন্ত্রী মাও চি কুও, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. ডেভিড তাওই লি, মন্ত্রীবৃন্দ, বিভিন্ন দেশের চেম্বার সভাপতিসহ খ্যাতনামা ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কোন মন্তব্য নেই