হাটহাজারীর নবাগত ইউএনও’র সাথে ক্যাব নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ

0
.

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার নবাগত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শাহিদুল আলম বলেছেন, মানুষের জীবন ও জীবিকার সাথে জড়িত সবগুলি অধিকারই ভোক্তা অধিকারের আওতাভুক্ত। আমরা প্রত্যেকেই কোন না কোন ভাবে পন্য বা সেবার ভোক্তা। তাই দেশের ভোক্তাদের জাতীয় প্রতিনিধিত্বকারী প্রতিষ্ঠান হিসাবে কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) কে নিত্যপণ্যে কৃত্রিম সংকট, মূল্যবৃদ্ধি, খাদ্যে ভেজালের বিষয়গুলির পাশাপাশি সকল নাগরিক অধিকার নিয়ে উপজেলা প্রশাসনের সাথে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে।

আজ ১৫ জুলাই বৃহস্পতিবার সকালে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে ক্যাব হাটহাজারী শাখার সাথে সৌজন্য সাক্ষাতকালে নবাগত ইউএনও উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

সৌজন্য সাক্ষাতে ক্যাব হাটহাজারীর সভাপতি সাংবাদিক ন ম জিয়াউল হক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী এম এন এ রুবেল, যুগ্ন সম্পাদক নুরুল ইসলাম নোবেল, সদস্য সাংবাদিক বোরহান উদ্দীন, সৈয়দা জান্নাতুল ফেরদাউস, জেসমিন বিনতি চৌধুরী ও মহিউদ্দীন ইমরান সহ ক্যাব প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নবাগত ইউএনও মোঃ শাহিদুল আলম আরও বলেন, আমাদের দেশে ভোক্তারা নানাভাবেই প্রতারিত হচ্ছে। এই প্রতারণার দায় কেবল ব্যবসায়ীদের নয়, আমরা ভোক্তাদের অসচেতনতাও এর জন্য দায়ী। আমাদের প্রত্যেককে ভোক্তা অধিকারগুলো সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। অনেক ব্যবসায়ীরা আছেন তারা ইচ্ছাকৃতভাবে কৃত্তিম সংকট খাদ্যে ভেজাল এসবে জড়িত হন। অনেকে না জেনেই প্রতারণার ফাঁদে পা বাড়ান। অথচ এই খাদ্য ভেজালের কারনে আগামি প্রজন্ম পুরোটাই মেধাশুণ্য ও অসুস্থ হবে। তাই অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে শুধুমাত্র প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট নয়, প্রয়োজন তাদেরকে সামাজিক ভাবে বয়কট ও প্রতিরোধ। আর সেক্ষেত্রে ভোক্তা সংগঠন হিসাবে ক্যাবকে আরও শক্তিশালী ও সক্ষমতা বাড়ানো গেলে ব্যবসায়ী ও ভোক্তাদের মাঝে সমন্বয় জোরদার হবে। সরকারি-বেসরকারী সব সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানে মানসম্মত, গুনগত সেবা ও নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে ভোক্তাদের আরও বেশী শিক্ষা ও সচেতনতা বাড়ানো দরকার।

ক্যাব হাটহাজারীর সভাপতি ন ম জিয়াউল হক চৌধুরী শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, ক্যাব প্রতিনিয়তই ভোক্তাদের ভোগান্তি ও সমস্যাগুলি নিয়ে সরকারি সংশ্লিষ্ঠ দপ্তর ও প্রশাসনের দৃষ্ঠি আকর্ষন করে থাকে। সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মাঠ পর্যায়ের সেবা প্রদানে ত্রুটি-বিচ্যুতি, অসংগতি, দুর্বলতা ও অস্বচ্ছতা এবং ভোক্তাদের অধিকার ভোগের প্রতিবন্ধকতাগুলি তুলে ধরে। তিনি আরও বলেন ক্যাব মনে করে ভোক্তাদের অধিকার রক্ষায় উপজেলা প্রশাসনের আরো বেশি কাজ করার সক্ষমতা রয়েছে।

এছাড়া মাঠ পর্যায়ে জন সচেতনতা সৃষ্টির জন্য নিয়মিত সেমিনার ও সভা সমাবেশ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ভোক্তাদের আেো সচেতন করার সুযোগ রয়েছে। পাশাপাশি নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার ক্ষুন্নকারীদের শাস্তির আওতায় আনার সুযোগ রয়েছে। হাটহাজারীতে ভোক্তা অধিকার সুরক্ষিত করতে ও সরকারের বিভিন্ন বিভাগ ও দপ্তরের মাঠ পর্যায়ে সেবা নিশ্চিতে উপজেলা প্রশাসন ও ক্যাব’র সমন্বিত ভাবে করবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন। -প্রেসবিজ্ঞপ্তি

কোন মন্তব্য নেই