আন্দোলনের হুমকি শিক্ষক সমিতি’র
চিটাগাং স্টীল মিলস স্কুলের ১৫শিক্ষক-কর্মচারীকে অপসারন

0
normal_IM000845
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম মহানগরীর পতেঙ্গাস্থ চিটাগাং স্টীল মিলস্ হাইস্কুলের ১৩জন শিক্ষক ও ২ জন কর্মচারীদের অন্যায়ভাবে অপসারণ করা হয়েছে মর্মে অভিযোগ উঠেছে।

গত ৩১ মার্চ থেকে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক ১৫ জন শিক্ষক কর্মচারীকে বেআইনীভাবে অপসারণ করেন বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি চট্টগ্রাম আঞ্চলিক শাখার নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার সংবাদ পত্রে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, বিধি মোতাবেক তারা নিয়োগ প্রাপ্ত হলেও গত ৩১ মার্চ থেকে তাদের চাকুরী থেকে অপসারণ করা হয়েছে। যাহা অত্যন্ত অমানবিক।

অথচ বিদ্যালয়টি বেপজা কর্তৃপক্ষ অধিগ্রহণকালে প্রধান শিক্ষক প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছেন বলে অসহায় শিক্ষক, কর্মচারীবৃন্দ জানান।

এ ব্যাপারে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, চট্টগ্রাম ও জেলা শিক্ষা অফিসারকে লিখিতভাবে অভিযোগ করা হয়েছে।

বাশিস নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে উক্ত শিক্ষক, কর্মচারীদের চাকুরীতে পুনঃবহালের দাবী জানিয়েছেন।

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে বাশিস চট্টগ্রাম আঞ্চলিক শাখার এক প্রতিবাদ সভা বৃহস্পতিবার সভাপতি সৈয়দ লকিতুল্লাহর সভাপতিত্বে আন্দরকিল্লাস্থ শিক্ষক ভবনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত বেআইনী সম্পূর্ণ অমানবিক। চাকুরীচ্যূত এসব শিক্ষক কর্মচারী বর্তমান অসহায় হয়ে পড়েছেন। চাকুরীতে পুনবহাল না হলে চট্টগ্রামের শিক্ষকদের নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলন ঘোষণা করা হবে বলে হুঁসিয়ারী করেন নেতৃবৃন্দ।

প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলদেশ শিকষক সমিতির চট্টগ্রাম আঞ্চলিক প্রধান উপদেষ্টা সুনীল চক্রবর্ত্তী।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক অঞ্চল চৌধুরী, সহ-সভাপতি আ ক ম শহীদুল্লাহ মানিক, যুগ্ম সম্পাদক শিমুল মহাজন, মোহাম্মদ আলতাজ মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক সঞ্জীব কুসুম চৌধুরী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল উদ্দিন, দপ্তর সম্পাদক কৃষ্ণ শেখর দত্ত, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দেবেশ দাস, মহিলা সম্পাদিকা মনিকা সেন, চট্টগ্রাম মহানগরীর সভাপতি নুরুল হক ছিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কানুনগো, বাশিস চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি রনজিৎ কুমার নাথ, সাধারণ সম্পাদক মো. জানে আলম, বাশিস দক্ষিণ জেলার সভাপতি মোঃ ওসমান গণি, সাধারণ সম্পাদক ছগির মোহাম্মদ।

এদিকে ঘটনার ব্যাপারে জানতে চিটাগাং স্টীল মিলস্ হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক এবং স্কুল কর্তৃপক্ষের সাথে বার বার চেষ্টা করেও কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন