ফ্যাশন নিয়ে প্রচলিত কিছু ভুল ধারণা

0
image-10087
.

সবাই নিজের মতো সাজতে বা চলতে পছন্দ করেন। একেক জনের ফ্যাশন একেক ধরনের। ফ্যাশন শব্দটার সাথে আমরা কম বেশি সবাই পরিচিত। নিজেকে অন্যের কাছে স্মার্ট এবং আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য পোশাক থেকে শুরু করে আনুষঙ্গিক সব কিছুকেই ফ্যাশন বলা হয়।

ফ্যাশন সম্পর্কে নানাজনের নানা মত। আছে কিছু মিথ্যে ধারণাও। আজ থেকে ২০ বছর আগের সেই বাঁধাধরা নিয়মগুলোতে কেন আবধ্য থাকবেন? বদলে গেছে সময়। বদলে গেছে ফ্যাশনের ধরন। ফ্যাশনের এমনই দশ প্রচলিত ধারণা আজ আপনাদের জানাবো যা আদৌ সত্য নয়।

গাঢ় রঙের অনুষঙ্গ একের অধিক হওয়া মানা: অনেকের মনে প্রচলিত ধারণা রয়েছে পোশাক বা অনুষঙ্গে একের বেশি গাঢ় রঙ ব্যবহার করতে হয় না। আসলে এই ধারণা ভুল। আপনি শেড মিলিয়ে পোশাক এবং অনুষঙ্গ নির্বাচন করলে একের অধিক গাঢ় রঙ কোনো ব্যাপারই না। হয়ত একটা হলুদ নেকলেস পরলেন, সাথে সবুজ পার্স আর পায়ে লাল স্যান্ডেল। আপনাকে ফ্যাশনেবল করে তুলতে এগুলোই যথেষ্ট।

বেল্ট বা পার্সের সাথে রঙ মিলিয়ে জুতা পরতে হয়: মিস বা মিস্টার ম্যাচিং যারা আছেন তারা প্রায় সব কিছুই ম্যাচিং করে পরতে চান। প্রচলিত ধারণা রয়েছে, বেল্ট বা পার্স এর সাথে ম্যাচ করে জুতা পরাটা ফ্যাশনের অংশ যা সম্পূর্ণ ভুল।মনে করুন আপনার ম্যাজেন্টা রঙের পার্স আছে। লাল–গোলাপির ছোঁয়া আছে এমন পোশাক আর সাথে লাল স্যান্ডেল হলে কিন্তু আপনাকে পুরোপুরি মানিয়ে যাবে খুব সহজে। আবার ধরুন, হলুদের সাথে সবুজ তেমন একটা খাপ খায় না। অথচ শেড একটু এদিক সেদিক করলেই হলুদ সবুজ মিলে আপনাকে করে দিতে পারে ফ্যাশনেবল নারী।

ঝলমলে পোশাকগুলো কেবল রাতের অনুষ্ঠানেই মানায়: প্রচলিত এই ধারণা এখন আর নেই বললেই চলে। ঝলমলে পোশাক এখন আপনি চাইলে অনায়াসে দিনের বেলায় ও পরতে পারেন। এমন কি অফিসের মিটিং এ ঝলমলে পোশাকের উপর একটা ব্লেজার পরলে তা আপনাকে দিবে অন্যরকম স্মার্টনেস।

খাটোদের লম্বা পোশাক পরতে হয় না: এটি আমাদের দেশে এক অতি সাধারণ প্রচলিত কথা যে খাটো মেয়েদের লম্বা পোশাকে আরো বেশি খাটো লাগে। অথচ এই ধারণা সম্পুর্ন ভুল। লম্বা পোশাকে একটু উঁচু হিল পরলে তা দিবে আপনাকে বাড়তি উচ্চতা। একটু উঁচু করে চুল বাঁধলে আপনার ঘাড় পাবে একটু বেশি উচ্চতা। আর ছোট প্রিন্টের পোশাকে আপনাকে মানাবেও বেশ।

.

রঙ এবং প্রিন্ট কখনও এক রঙের করতে নেই: বলা হয়ে থাকে যে রঙের কাপড় সে রঙের প্রিন্ট সেই কাপড়ে মানায় না। অথচ একই রঙের কাপড় এবং প্রিন্ট মিলে কিন্তু অন্য রকম এক সৌন্দর্য্য সৃষ্টি করে। যা আপনাকে করে তুলতে পারে অধিক ফ্যাশনেবল।

সাদা পোশাক মানেই গরমের পোশাক: তাপ কম শোষণ করে বলে আমরা সাধারণত গরমের সময় হালকা রঙের পোশাক বেছে নিই। একটি বড় ধরনের প্রচলিত ধারণা রয়েছে যে সাদা পোশাক কেবল গরমের পোশাক। অথচ এই আমরাই শীতকালে দিব্যি সাদা জ্যাকেট, সোয়েটার, শাল বা জিন্স পরে থাকি। আসলে, এই ধারণা ভুল। সাদা বা উজ্জ্বল রঙের পোশাক আপনি যে কোন ঋতুতেই পরতে পারেন। কেবল, পোশাকের উপকরনের প্রতি একটু খেয়াল রাখতে হবে আর কি!

লম্বা মেয়েদের উঁচু হিলের জুতা মানায় না: উঁচু হিল এর জুতা নিয়ে এই প্রচলিত ধারণা অতি সাধারণ। তাই বেশিরভাগ লম্বা মেয়েদেরই দেখা যায় স্লিপার পরতে। উঁচু হিলের জুতা কিন্তু উচ্চতা বৃদ্ধি নয় বরং পায়ের সৌন্দর্য্য বাড়ানোর কাজ করে। তাই আপনার ইচ্ছে হলে আপনি উঁচু হিলের জুতা পরতে পারেন। তবে হিলে স্বাস্থ্যঝুঁকিও রয়েছে।

সমান্তরাল স্ট্রাইপের পোশাকে মোটা দেখায়: আমরা প্রায় সবাই এই কথা কম বেশি শুনেছি যে সমান্তরাল স্ট্রাইপের পোশাকে মানুষকে মোটা দেখায় আর লম্বাটে স্ট্রাইপের পোশাকে চিকন দেখায়। বিশ্বাস করুন আর না করুন, সম্প্রতি নিউ ইয়র্কের এক বিশ্ববিদ্যালয়য়ের করা সার্ভেতে দেখা গেছে, সমান্তরাল স্ট্রাইপের পোশাকে মানুষকে তুলনামূলক কম চওড়া লাগে! মানে হল, নিজেকে একটু চিকন দেখতে চাইলে সমান্তরাল বা হরাইজোনাল স্ট্রাইপের পোশাক বেছে নিন।

সোনালি আর রূপালি রঙের গয়না একসাথে পরা যায় না: এখনো অনেকেই মনে করেন সোনালি আর রূপালি রঙের গয়না একসাথে পরলে মানায় না। কিন্তু মজার কথা কি জানেন, বর্তমানে ফ্যাশনের একটি বড় অংশ জুড়েই রয়েছে সোনালি রুপালি রঙ মেশানো গয়না।

কালো আর নীল পোশাক এক সাথে পরতে হয় না: কালো আর নীল কাছাকাছি রঙের বলে অনেকেরই ধারণা এই দুই রঙের পোশাক এক সাথে পরতে নেই। জানেন কি নীল সেলোয়ার, কালো জামার সাথে আপনি যদি লাল স্যান্ডেল আর লাল লিপস্টিক পরেন তা আপনাকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলবে? কিংবা নেভি ব্লু জিন্সের সাথে কালো শার্ট পরলে, একটা সাদা ব্লেজার পরলে আপনাকে অতিরিক্ত ফ্যাশনাবেল লাগবে।

তাহলে জানলেন তো ফ্যাশন নিয়ে প্রচলিত কিছু ধারণা যা মোটেও সত্য নয়! এবার তবে সাজুন নিজের মত, নিজের ফ্যাশন হোক নিজের মনের মত রঙে আর ঢঙে। সুত্র: বি বার্তা

কোন মন্তব্য নেই