রাঙামাটিতে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও আইস সহ ৭ উপজাতি সন্ত্রাসী গ্রেফতার

0
.

রাঙামাটি জেলা প্রতিনিধি:

রাঙামাটির বরকল উপজেলাধীন ভারত সীমান্তবর্তী বড় হরিণাস্থ কর্ণফূলী নদীর পাড়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে উপজাতীয় পাংকুয়া সম্প্রদায়ের সাতজন সন্ত্রাসীকে অস্ত্র, ভারতীয় গুলি ও নিষিদ্ধ মাদক আইস’সহ আটক করার ঘটনায় বরকল থানায় দু’টি পৃথক মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

বরকল সার্কেলের দায়িত্বে থাকা এএসপি মোঃ আব্দুল আউয়াল চৌধুরী জানান, বরকল থানা পুলিশ ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে আটককৃত সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে আমরা অস্ত্র ও তাজা গুলিসহ প্রায় ৯৭০ গ্রাম আইস সদৃশ কোকেন জাতীয় মাদক উদ্ধার করেছি। এই ঘটনায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্র ও মাদক রাখার অপরাধে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হচ্ছে। আপাতত আটককৃতরা সকলেই বরকল থানায় রয়েছে।

.

সার্কেল এএসপি আরও জানান, বুধবার বরকল থানাধীন বড়হরিণা বিজিবি ক্যাম্পের সামনে কর্ণফূলী নদীর পাড়ে বিজিবি ও বরকল থানা পুলিশের যৌথ চেকপোষ্টে তল্লাসী চালিয়ে (১) থানজৌয়াল পাংকুয়া(১৬), (২) হওয়াংপুইয়া পাংকুয়া(৩৮),(৩) আদি পাংকুয়া(১৬), (৪) লাললম পাংকুয়া(২৫), (৫) এলবিট পাংকুয়া(২০) এই পাঁচজনকে প্রাথমিকভাবে আটক করে এবং তাদেও দেহে তল্লাসী চালিয়ে পকেট থেকে পাশ্ববর্তি রাষ্ট্রের তৈরি ২০পিছ বন্দুকের গুলি, ৯৭০ গ্রাম কোকেন যা আইস সদৃশ, ০.২২ বোরের ১২টি গুলির খোসা, নোপালি ডিএমএস দুই জোড়া বিশেষ বুট ও তিন প্যাকেট টেষ্টিং সল্ট পাওয়া যায়।

এই ঘটনার পর আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হয়। এসময় গ্রেফতারকৃত সন্ত্রাসীরা তাদের নির্দিষ্ট্য জায়গায় অস্ত্র মজুদ রাখার তথ্য দিলে তাদেরকে সাথে নিয়ে বিজিবি-পুলিশের সদস্যরা বৃহস্পতিবারা সারাদিনই অভিযান পরিচালনা করে।

এসময় বরকলের হালাম্বা এলাকায় গিয়ে আটককৃত থানজৌয়াল ও লাললম পাংকুয়ার নিজ বসতঘর হতে এবং তাদের অন্য দুই সহযোগি (৬) জৌরাম(২৩) ও লিয়ান্না পাংকুয়া(৫১) এর ঘর হতে মোট চারটি অস্ত্র উদ্ধার করে।

পুলিশ জানায়, সর্বমোট ৮টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে কিন্তু উদ্ধারকৃত অস্ত্রগুলোর মধ্যে চারটির বৈধ কাগজপত্র দেখানো হলে সেগুলো জব্দ করিনি। ইতিমধ্যেই আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মাধ্যমে তদন্ত করা হচ্ছে তারা অত্রাঞ্চলের কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠির সদস্য কিনা বা বিচ্ছিন্নতাবাদী কোনো সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছে কিনা সেটিও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

কোন মন্তব্য নেই