ঝাউতলায় ট্রেন-বাস ও সিএনজির ত্রিমুখী সংঘর্ষে পুলিশসহ নিহত ২, আহত ১০

0
.

চট্টগ্রাম মহানগরীর খুলশী থানাধীন ঝাউতলা রেল ক্রসিং-এ ডেমু ট্রেনের সঙ্গে বাস ও সিএনজি অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে এক ট্রাফিক কনস্টেবলসহ দুইজন নিহত ও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।আহতদের চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে দশটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি একজন পুলিশ সদস্যের নাম মো. মনিরুল ইসলাম। তিনি ট্রাফিক বিভাগে কর্মতে ছিলেন। তবে অপর নিহত ব্যক্তির নামপরিচয় জানা যায়নি।

.

চট্টগ্রাম রেলওয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হাছান চৌধুরী বলেন, সকালে রেলক্রসিংয়ে ডেমু ট্রেনের সঙ্গে ত্রিমুখী সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে ২জন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছে। রেল সিগন্যাল অমান্য করার কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

দুর্ঘটনার পর চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানার (জিআরপি) ওসি সরোয়ার আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘ঝাউতলা রেল ক্রসিংয়ে একটি বাসের সঙ্গে দুটি সিএনজি ও ডেমু ট্রেনের ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়। এখন পর্যন্ত ঘটনাস্থল থেকে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আরও অনেকে আহত হয়েছে৷ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।’

.

স্থানীয়রা জানান, রেলওয়ের সিগনাল অমান্য করে রেল ক্রসিং পার হতে গিয়ে সিএনজি অটোরিকশা ও বাস ডেমু ট্রেনের সামনে পড়ে যায়। এতে সংঘর্ষ হয়। এসময় বাস ও সিএনজিতে থাকা যাত্রীরা মারাত্মক আহত হয়েছেন।

একজন প্রতক্ষ্যদর্শী জানায়, নাজিরহাট থেকে একটি  ডেমু ট্রেন চট্টগ্রাম রেল স্টেশন আসছিল। তার আগে ঘটনাস্থল ঝাউতলা সিগন্যালে ৭ নম্বর রোডের একটি বাস সেখানে থাকা সিএনজি অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়৷ সেই ধাক্কায় আরেকটি সিএনজির সাথে লাগে৷ দুটি সিএনজি রেল লাইনে উপর পড়ে৷ এতে ডেমু ট্রেনটির ধাক্কায় দুমড়ে মুছড়ে যায় সিএনজি দুটি। সেখানে দায়িত্বরত ট্রাফিক কনস্টেবল মনিরুল ইসলামসহ দুজন নিহত হয় ঘটনাস্থলেই৷ এছাড়া আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন।

পাঁচলাইশ মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সাদেকুর রহমান বলেন, আহতদের চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। মরদেহ দুটি মর্গে পাঠানো হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই