কক্সবাজাের অনুষ্ঠিত হল কসমো কনজুমার প্রোডাক্টসের বার্ষিক বিক্রয় সম্মেলন

0
.

সমুদ্রসৈকতের নগরী কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হল দেশের অন্যতম ভোগ্যপণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান কসমো কনজুমার প্রোডাক্টস লিমিটেডের বার্ষিক বিক্রয় সম্মেলন।

গতকাল ৬ ডিসেম্বর সোমবার কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্র মিলনায়তনে দিনব্যাপী উৎসবমূখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে সারা দেশ থেকে বিক্রয় ম্যানেজার ও বিক্রয় কর্মীরা অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কসমো গ্রুপের চেয়ারম্যান জহির উদ্দীন হায়দার, কসমো কনজুমার প্রোডাক্টস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাদিয়া হায়দার এবং কসমো গ্রুপের পরিচালক এবং কসমো কনজুমার প্রোডাক্টস লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক নাঈম হায়দার।

অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে কসমো গ্রুপের চেয়ারম্যান জহির উদ্দীন হায়দার বলেন, ১৯৯৭ সালে রপ্তানিমুখী গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং শিল্প দিয়ে যাত্রা শুরু করা কসমো গ্রুপ আজ দেশের অন্যতম বৃহৎ একটি শিল্পগ্রুপ। ব্যবসায়িক সততা, অঙ্গীকার, দৃঢ়তা, সময়নিষ্ঠা এবং সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার মনোভাবের কারনে কসমো গ্রুপ দেশে এবং বিদেশে গ্রাহকদের কাছে প্রিয় একটি নাম। ম্যানুফ্যাকচারিং ফর দ্য ওয়ার্ল্ড স্লোগানে কসমো গ্রুপ নিজের অবস্থান ধরে রেখে গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে কসমো গ্রুপ ভোগ্যপণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ করছে। পণ্যের গুনগত মান এবং প্রতিযোগিতামূলক মূল্যের কারনে কসমো কনজুমারের পণ্যকে ভোক্তারা আপন করে নিয়েছেন। দিনে দিনে কসমো কনজুমার প্রোডাক্টস এর একেকটি পণ্য ব্র্যান্ডে পরিণত হচ্ছে। বিশেষ করে মশার কয়েল জোনাকি, মার্শাল, রিকো, এ এম দেশের এক নম্বর ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে। এছাড়া গ্রুপের অন্যান্য ভোগ্যপণ্য যেমন পান্ডা ডিটারজেন্ট, থাই বিউটি সোপসহ সব পণ্যই তার স্বকীয় অবস্থান তৈরি করেছে। এ কারনে তিনি সারা দেশের বিক্রয় ম্যানেজার ও কর্মীদের ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ডিভিশনাল সেলস ম্যানেজার-সাউথ জোন মির্জা মিজানুর রহমান, নর্থ জোনের ডিভিশনাল ম্যানেজার মোঃ আসাদুজ্জামান, কুমিল্লা জোনের ডিভিশনাল ম্যানেজার আলমগীর ফিরোজ শামীম, রাজশাহী এবং নাটোর জোনের এরিয়া সেলস ম্যানেজার মোঃ আলমগীর হোসেন, কুষ্টিয়া জোনের এরিয়া সেলস ম্যানেজার মোঃ রোনাস আহমেদ, কুমিল্লা জোনের রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার মোঃ বিশারত আলী, বরিশাল জোনের এরিয়া সেলস ম্যানেজার মোঃ হুমায়ূন কবির এবং ফরিদপুর জোনের এরিয়া সেলস ম্যানেজার মোঃ মিশাদুর রহমানসহ কসমো গ্রুপের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত সম্মেলনে সেরা বিক্রয়কর্মীদের সম্মাননা দেয়া হয়। শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের স্থানীয় জনপ্রিয় শিল্পীরা।

উল্লেখ্য, কসমো কনজুমার প্রোডাক্টস এর পণ্যগুলো দ্রুত সারা দেশের ভোক্তাদের আস্থা অর্জন করেছে। কসমো গ্রুপের সেরা মশার কয়েল জোনাকি, রিকো, মার্শাল, এ এম ও রক দেশের বাজারে চাহিদার শীর্ষে অবস্থান করছে। এছাড়া পান্ডা ডিটারজেন্ট পাউডার, মেডিড্রপ অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল সোপ, থাই বিউটি সোপ, হ্যাটট্রিক টয়লেট ক্লিনার, রিকো ফেব্রিক হোয়াইটনার, থাই বিউটি শ্যাম্পু, কসমো ইনসেক্ট পাউডার দিনে দিনে জনপ্রিয় ব্র্যান্ডে পরিণত হচ্ছে।

কসমো কনজুমার প্রোডাক্টস সম্প্রতি বাজারে এনেছে এভারেস্ট প্রিমিয়াম টি। বাগান থেকে সংগৃহীত কৃত্তিম রঙ ও গন্ধমুক্ত আসল চায়ের ফ্লেভারের কারনে অচিরেই এভারেস্ট টি সেরাদের সেরা চায়ের ব্র্যান্ডে পরিণত হবে বলে আশা করছেন উদ্যোক্তারা। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত খ্যাতিমান অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু সম্প্রতি এভারেস্ট প্রিমিয়াম টি এর মডেল হয়েছেন।
এছাড়া কসমো কনজুমার প্রোডাক্টস এর পান্ডা ডিটারজেন্ট পাউডার ও থাই বিউটি সোপ এর মডেল হয়েছেন এ প্রজন্মের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা ও মডেল ফারিন খান। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

কোন মন্তব্য নেই