চট্টগ্রামে নির্বাচনী সহিংসতায় ইউপি সদস্য প্রার্থী ইয়াছিন মেম্বার নিহত

0
05_Brahmanbaria_election+Clash_280516_0004
কর্ণফুলির শাহমীরপুর একটি ভোট কেন্দ্রে দুই গ্রুপের সংর্ঘর্ষ চলছে।

চট্টগ্রামের কর্ণফুলি থানার পশ্চিম শাহমীরপুর এলাকায় নির্বাচনী সহিংসতায় মো. ইয়াছিন মেম্বার প্রকাশ লেদু (৪০) নামে এক ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন অন্তত ৩ জন।

শনিবার বেলা পৌনে ১টার দিকে কর্ণফুলীর বড় উঠান ইউনিয়নে দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের পর আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর বেলা দেড়টার দিকে ইয়াছিন মেম্বার মারা যান বলে নিশ্চিত করেছেন নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (বন্দর) হারুনুর রশিদ হাজারী।

স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে নির্বাচন চলাকালে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বড়উঠান ইউনিয়নের শাহ মীরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ সমর্থিত দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে ৪ জন ছুরিকাঘাতে আহত হন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়িতে কর্তব্যরত এস আই জহিরুল ইসলাম বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় ইয়াছিন নামে একজনকে হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেছেন। এছাড়া শরীফ (৩২) ও আলম (২০) নামে দুজন অবস্থায় চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বলে তিনি জানান।

কর্ণফুলী থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, দুপুর ১টার দিকে শাহ মীরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আকস্মিকভাবে দুইপক্ষে সংঘাত শুরু হয়। গোলাগুলি ও ধারালো ছুরির আঘাতে তিনজনের মত আহত হয়। তবে ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে বলে জানিয়েছেন ওসি। নিহত ইয়াছিন বড়উঠান ইউনিয়নের ৬ নম্বর শাহ মীরপুর ওয়ার্ড থেকে সদস্য পদে প্রার্থী ছিলেন বলে জানান ওসি রফিক।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন