৬৯ বছর বয়সে বাবা হলেন রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক

1
1464433770
বিবাহিত জীবনের প্রথম কন্যা সন্তানকে কোলে নিয়ে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এভাবে ছবি তোলার জন্য পোজ দেন

৬৯ বছর বয়সে প্রথম সন্তানের বাবা হলেন রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক। শনিবার বিকাল সোয়া ৩টার দিকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে তাঁর স্ত্রী এডভোকেট হনুফা আক্তার রিক্তা এ কন্যা সন্তানের জন্ম দেন।

বিষয়টি পাঠক নিউজ ডটকমকে নিশ্চিত করেছেন মন্ত্রীর ভাতিজা এডভোকেট আবুল খায়ের। এ সময় মন্ত্রী মুজিবুল হক ও স্বজনরা হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন।
জানা যায়, রেলমন্ত্রীর সন্তান সম্ভাবা স্ত্রী হনুফা আক্তার রিক্তাকে গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে মন্ত্রীর স্ত্রীকে সিজারিয়ানের জন্য অপারেশন থিয়েটারে নেয়া হয়। সোয়া ৩টার দিকে ডাক্তারদের সফল অপারেশনের মাধ্যমে তিনি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন।
railminister1120160212094100রাজনীতির পেছনে ছুটে চলা কুমিল্লার সন্তান মুজিবুল হক জীবনের ৬৭টি বসন্ত অতিক্রম করে বিগত ২০১৪ সালের ৩১ অক্টোবর জেলার চান্দিনা উপজেলার মিরাখলা গ্রামের হনুফা আক্তার রিক্তাকে বিয়ে করেন। তাঁর ওই রাজকীয় আয়োজনের বিয়ে দেশব্যাপী বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল। আগামী ৩১ মে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হকের হকের ৬৯তম জন্মদিন।
 এ সময় তাঁর পরিবারে নতুন এ অতিথির আগমনে তিনিসহ গোটা পরিবার এ শুভ দিনটি এ বছর ভিন্ন আমেজে উদযাপন করবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।
 14153২০১৪ সালের ৩১ অক্টোবর ৫ লাখ ১ টাকা দেনমোহরে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মীরাখোলা গ্রামের মেয়ে হনুফা আক্তার রিক্তার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন মুজিবুল হক।

 

একটু বেশি বয়সে বিয়ে করলেও সব আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেই কনেকে ঘরে তুলেন রেলমন্ত্রী। গায়ে হলুদ, কনের বাড়িতে ধুমধামের সঙ্গে বিয়ের আয়োজন, ঢাকা থেকে বরযাত্রী নিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে বৌভাত কোনটারই এই বিয়েতে কমতি ছিল না।

১৯৪৭ সালের ৩১ মে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের বসুয়ারা গ্রামে মো. মুজিবুল হক জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯৬, ২০০৮ ও ২০১৪ সালে তিনি চৌদ্দগ্রাম থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন। ২০১২ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে তিনি রেলপথমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন।

১৯৮৫ সালের ২০ মে হনুফা আক্তার ওরফে রিক্তা জন্মগ্রহণ করেন। ২০০১ সালে গল্লাই আবেদা নূর বালিকা উচ্চবিদ্যালয় থেকে রিক্তা এসএসসি পরীক্ষা ও যথাক্রমে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

Advertisements

প্রথম মন্তব্য

একটি মন্তব্য দিন