চট্টগ্রাম বন্দরে চীন থেকে এলো আরও দুইটি কী গ্যান্ট্রি ক্রেন

0

 

.

চট্টগ্রাম বন্দরের আমদানি-রপ্তানির গতি ত্বরান্বিত করতে যুক্ত হয়েছে নতুন আরও ২টি কী গ্যান্ট্রি ক্রেন (কিউজিসি) ও ৩টি আরটিজি।

আজ সোমবার (৪ জুলাই) বিকেলে চীন থেকে কিউজিসি নিয়ে আসা জাহাজটি বিশেষ ব্যবস্থায় বন্দরের এনসিটি-৫ জেটিতে ভিড়েছে।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মো. ওমর ফারুক দুইটি কী গ্যান্ট্রি ক্রেন (কিউজিসি) এবং তিনটি রাবার টায়ার গ্যান্ট্রি (আরটিজি) ক্রেন নিয়ে জাহাজটি জেটিতে ভিড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দুইটি কী গ্যান্ট্রি ক্রেন ও তিনটি রাবার টায়ার গ্যান্ট্রি ক্রেনবাহী জাহাজটি বার্থিংয়ের কাজে সহায়তা করেছে বন্দরের নিজস্ব শক্তিশালী টাগবোট কাণ্ডারী ৬, ৮, ১০ ও ১১ এবং মুরিং বোট আজমত।

.

জানাগেছে, বন্দর কর্তৃপক্ষ (চবক) নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন ‘চট্টগ্রাম বন্দরের বিভিন্ন ইয়ার্ড এবং টার্মিনালের জন্য প্রয়োজনীয় ইক্যুইপমেন্ট সংগ্রহের আওতায় ৪টি কী গ্যান্ট্রি ক্রেন সংগ্রহের উদ্যোগ নেয়। এতে ব্যয় হয় ২৪৮ কোটি ২০ লাখ ৯১ হাজার ৭৪০ টাকা। চীনের সাংহাই জেনহুয়া হেভি ইন্ডাস্ট্রিজ কোম্পানি লিমিটেড (জেডপিএমসি) ক্রেনগুলো সরবরাহ করছে।।

এর আগে ৭ মে বন্দরে ‘জেন হুয়া ১২’ জাহাজে করে চীন থেকে আনা হয়েছিল দুটি কী গ্যান্ট্রি ক্রেন (কিউজিসি) ও তিনটি রাবার টায়ার গ্যান্ট্রি (আরটিজি)।

বন্দর সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নতুন যন্ত্রপাতি সংযোজনের ফলে বন্দরের অপারেশনাল কাজে গতি বাড়বে।এ নিয়ে সিসিটিতে ৪টি, এনসিটিতে ১৪টি কিউজিসি হচ্ছে। এনসিটির ১ নম্বর জেটিতে ২টি, ২-৫ নম্বর জেটিতে ৩টি করে কিউজিসি বসবে। নতুন আরটিজিসহ বন্দরের সিসিটি ও এনসিটিতে আরটিজি হচ্ছে ৪৫টি। আধুনিক হ্যান্ডলিং ইক্যুইপমেন্ট সংযোজনের ফলে বন্দরের সক্ষমতা বাড়বে।

বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহজাহান বলেন, অনেকটাই প্রস্তুত অবস্থায় আনা হয়েছে নতুন সরঞ্জামগুলো। এগুলো চালুর ফলে বন্দরের সক্ষমতা ও গতিশীলতা দুইই বাড়বে।

বন্দর সূত্রে জানা গেছে, ২০০৫ সালে চট্টগ্রাম বন্দরের চিটাগাং কন্টেইনার টার্মিনালে (সিসিটি) প্রথম গ্যান্ট্রি ক্রেন যুক্ত হয়। এরপর ২০১৭ ও ২০১৮ সালে এনসিটিতে গ্যান্ট্রি ক্রেন (চলন্ত কপিকল) সংযুক্ত করা হয়।

বর্তমানে বন্দরের সিসিটিতে চারটি ও এনসিটিতে ১২টি কিউজিসি রয়েছে। নতুন আসা কিউজিসি দুটি এনসিটির ৫নং বার্থে বসানো হবে। এছাড়া বন্দরের অপারেশনাল কাজে ৪২টি আরটিজি রয়েছে। নতুন তিনটি আরটিজি রেফার ইয়ার্ডে কন্টেইনার অপারেশনে যুক্ত হতে হবে।

কোন মন্তব্য নেই