চট্টগ্রামে মিতু হত্যায় ব্যবহৃত মাইক্রোবাস চালকসহ আটক

0
mito MURDER-
মিতু হত্যার সময় সিসি টিভিতে ধরা পড়ে এই মাইক্রোবাস। ইনসেটে নিহত মিতু।

চট্টগ্রামে পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ডে সন্ত্রাসীদের ব্যাকআপ টিমের ব্যবহৃত কালো রঙের মাইক্রোবাসটি চালকসহ আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাতে চট্টগ্রাম নগরী থেকে এই মাইক্রোবাসটি আটক করা হয়েছে। তবে পুলিশ সুনির্দিষ্ট করে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানায়নি। আগামীকাল সকালে নিয়মিত প্রেস ব্রিফিং-এর মাধ্যমে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে বলে নগর গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। আটক মাইক্রো গাড়িসহ চালককে নগর পুলিশ (সিএমপি) কার্যালয়ে নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সিএমপি পুলিশ জানিয়েছে, গাড়িটি একটি শীর্ষস্থানীয় শিল্প গ্রুপের। তবে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চালক জানিয়েছে, পুলিশ সুপারের স্ত্রী হত্যাকাণ্ডে সঙ্গে তার বা মাইক্রোবাসটির সংশ্লিষ্টতা নেই।

মাইক্রোবাস আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছে চট্টগ্রাম নগর পুলিশ কমিশনার ইকবাল বাহার।

তিনি বলেন, মিতুকে হত্যাকারীরা মোটরসাইকেল যোগে পালিয়ে যাওয়ার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই একটি কালো রঙের মাইক্রোবাস ঘটনাস্থলে একটু থেমে আবার মোটরসাইকেলের পিছু পিছু চলে যায়। এই মাইক্রোবাসটি হত্যাকারীদের ব্যাকআপ টিম হিসেবে কাজ করেছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। ঘটনার প্রায় ৪ দিনের মাথায় এই হত্যাকাণ্ডের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে জানিয়ে পুলিশ কমিশনার বলেন বুধবার হত্যাকাণ্ডে জড়িত সাবেক এক শিবির কর্মীকে হাটহাজারী থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ জুন নগরীর জিইসি এলাকায় পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুকে কুপিয়ে এবং গুলি করে হত্যা করে ৩ মোটরসাইকেল আরোহী। এসময় এলাকায় ব্যকআপ টিম হিসেবে একটি মাইক্রোবাস ছিল যা সিসি টিভির ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন