চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব ও সিইউজে আয়োজিত শোকসভায় বক্তারা

সিদ্দিক আহমেদের মতো মানুষের যথাযথ মূল্যায়ণ হয়নি

0
.

ছোট-বড় সকল মানুষের প্রতি তাঁর ভালোবাসা সাংবাদিক সিদ্দিক আহমেদকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। তিনি বই ও জ্ঞানের মধ্যে আনন্দ খুঁজে পেতেন এবং তা অন্যদের মাঝে বিলিয়ে দিতেন। তিনি ছিলেন সাহসী আত্মমর্যাদা সম্পন্ন একজন পরিপূর্ণ ব্যক্তি। তিনি অন্যায়ের কাছে কখনো মাথা নোয়াননি। সিদ্দিক আহমেদ শুধু একজন সাংবাদিক নন লেখক ও আদর্শ মানুষ হিসেবে আজীবন সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে গেছেন। আজীবন সৎ এই সাংবাদিক তাঁর লেখা ও কর্মের মাধ্যমে আমাদের মাঝে আজীবন বেঁচে থাকবেন। চট্টগ্রামে থাকার কারণেই সিদ্দিক আহমেদের মতো মানুষের যথাযথ মূল্যায়ণ হয়নি। তাঁর আদর্শ ও জীবনাচরণের মধ্য দিয়েই তিনি চট্টগ্রামসহ সারাদেশের সাংবাদিক সমাজ ও প্রগতিশীল মানুষের মাঝে বেঁচে থাকবেন।

গতকাল রোববার (২৩ এপ্রিল) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত প্রবীণ সাংবাদিক প্রাবন্ধিক সিদ্দিক আহমেদের শোকসভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
সভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সিদ্দিক আহমেদ চট্টগ্রামসহ সারাদেশের সাংবাদিকসহ প্রগতিশীল মানুষের অত্যন্ত প্রিয়ভাজন ছিলেন। তিনি শুধু লেখক নন একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে আজীবন তাঁর সততা ও নিষ্ঠা ধরে রেখেছেন। প্রগতিশীল রাজনীতির সাথে যুক্ত থাকায় তাঁর চেতনা শানিত ছিল যা তাকে প্রকৃত মানুষ হতে সহায়তা করেছে। সিদ্দিক আহমেদ শুধু একজন মেধাবী সাংবাদিক ছিলেন না, তিনি সাহিত্য সংস্কৃতির বিভিন্ন শাখায় পা-িত্য দেখিয়েছেন। সিদ্দিক আহমেদ ছিলেন আক্ষরিক অর্থেই একজন পরিপূর্ণ মানুষ। নিজ কর্মগুণে তিনি সব বয়েসী মানুষের এতো প্রিয় ব্যক্তি ছিলেন যে তাকে চাইলেও কখনো ভোলা যাবে না।
শোকসভা থেকে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ নিভৃতচারী গুণি এ সাংবাদিকের নামে চট্টগ্রামের রাউজানে কোন সড়ক বা প্রতিষ্ঠানের নামকরণের দাবি জানান।

প্রেস ক্লাবের অনুষ্ঠিত এই শোক সভায় সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ার।

শোকসভায় বক্তব্য রাখেন-চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবু সুফিয়ান, সিইউজে সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, বিএফইউজে’র সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, সিইউজে সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আতাউল হাকিম, সিদ্দিক আহমেদের পুত্র তানিম আহমেদ সিদ্দিক, প্রকৌশলি মোহাম্মদ হারুণ, প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী আবুল মনসুর, সাংবাদিক মঈনুদ্দিন কাদেরী শওকত, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মহসিন চৌধুরী, বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, সদস্য আসিফ সিরাজ, সিইউজের সাবেক সভাপতি এম নাসিরুল হক, সিইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন, কবি ও সাংবাদিক ওমর কায়সার, বাসসের ব্যুরো প্রধান সমীর কান্তি বড়ুয়া, দৈনিক আজাদীর চিফ রিপোর্টার হাসান আকবর, সদস্য নুর মোহাম্মদ রফিক, সাংবাদিক নিরুপম দাশগুপ্ত,  স্বরূপ ভট্টচার্য, উজ্জ্বল কান্তি ধর, দেবদুলাল ভৌমিক,  শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার, ড. সৈয়দ আবদুল ওয়াজেদ প্রমুখ।

প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শোকসভায় সিদ্দিক আহমেদের সংক্ষিপ্ত জীবনী পাঠ করেন ক্লাবের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মিন্টু চৌধুরী।

সভার শুরুতে সিদ্দিক আহমেদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য প্রবীণ সাংবাদিক, প্রাবন্ধিক সিদ্দিক আহমেদ গত ১২ এপ্রিল ঢাকার বঙ্গলবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ে মারা যান। তিনি দীর্ঘদিন ধরে দুরারোগ্য ক্যান্সার রোগে ভুগছিলেন। সিদ্দিক আহমেদের লেখা এ পর্যন্ত আটটি বই প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া তাকে নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে দুটি স্মারকগ্রন্থও। দৈনিক আজাদীর সহকারী সম্পাদক হিসেবে ২০১৫ সালে পেশাগত জীবনের ইতি টানেন।

কোন মন্তব্য নেই