মুক্তি পেতে বাধা নেই
জামিন পেলেন অস্ত্রসহ গ্রেফতার ছাত্রলীগ নেতা রণি

0
গ্রেফতারের সময় রণি
হাটহাজারীর ভোট কেন্দ্র থেকে গ্রেফতারের সময় তোলা রণির ছবি ছবি: ভিডিও ফুটেজ থেকে নেয়া

ইউ পি নির্বাচন চলাকালে হাটহাজারীর একটি ভোট কেন্দ্রে থেকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার হওয়া চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রণি জামিন পেয়েছেন। সোমবার দুপুরে হাইকোর্ট থেকে জামিন লাভ করেন রণি।

হাইকোর্টের বিচারপতি মো. হাবিবুল গনি ও মো. আকবর হোসেন চৌধুরীর যৌথ বেঞ্চ অস্ত্র মামলায় রণিকে ৬ মাসের জন্য জামিনের আদেশ বলে জানান তার আইনজীবি স ম রেজাউল করিম।

এর আগে ভোট কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতের দেয়া দুই বছরের কারাদ-ের বিরুদ্ধে গত ২৫ মে আপিল মামলায় জামিন পান রণি। একই দিন অস্ত্র মামলায় রণি’র জামিন নামঞ্জুর করেন আদালত।

সর্বশেষ মামলায় জামিন পাওয়ার পর কারাগার থেকে মুক্তি পেতে তার আর কোন বাধা নেই বলে জানান তার আইনজীবি।

উল্লেখ্য গত ৭ মে বেলা সোয়া ১২টার দিকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন চলাকালে হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর একটি ভোট কেন্দ্রে ঘুরাফেরা করার সময় নগর ছাত্রলীগের প্রভাবশালী এ নেতাকে আটক করেন ভ্রাম্যমান আদালতের জুড়েশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট হারুনুর রশিদ। পরে তার দেহ তল্লাশী করে একটি নাইন এম এম পিস্তল ১৫ রাউন্ড গুলি ও ২৬ হাজার উদ্ধার করা হয়। প্রথমে বিজিবির সদস্যরা তাকে আটক করলেও পরে হাটহাজারী থানায় হস্তান্তর করা হয়।

পরে ম্যাজিষ্ট্রেট নির্বাচনী বিধিমালা ২০১৬ এর দুটি ধারায় এক বছর করে মোট দুই বছর কারাদ- দেন। এবং ঐদিন রাতে পুলিশ বাদী হয়ে রণির বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়। পরদিন সকালে তাকে সরাসরি কারাগারে পাছানো হয়।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ছাত্রলীগ চট্টগ্রামে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলে। তারা সড়ক অবরোধ মানববন্ধন জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ঘেরাওসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন তরে আসছিল।

ছাত্রলীগের এক সমাবেশে জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন রণিকে ভালো ছেলে এবং মেধাবী ছাত্র নেতা আখ্যায়িত করে তার মুক্তির ব্যাপারে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

নূরুল আজিম রণি রাজনীতিতে চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারী।

সম্প্রতি রণি’র নেতৃত্বে চট্টগ্রাম সরকারী কলেজ ও পার্শ্ববর্তি মহসীন কলেজ পুলিশের সহযোগিতায় জামায়াত শিবিরের কাছ থেকে ছাত্রলীগ দখল করে নেয়ার পর থেকে নূরুল আজিম রণি আলোচিত হয়ে উঠেন।

গ্রেফতারের দুই দিনের পর থেকে রণি হার্টের অসুস্থতায় চট্টগ্রাম মেডিকেলে পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন