পাকিস্তানের কাছে ভারতের লজ্জাজনক হার

2
.

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়ে দিয়ে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা ঘরে তুললো পাকিস্তান। বিরাট কোহলি, ধোনি, যুবরাজ, ধাওয়ান, রোহিত, অশ্বিনদের ১৮০ রানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো এই টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতলো সরফরাজ, শোয়েব মালিক, হাফিজ, ফখর জামানদের পাকিস্তান।

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল ম্যাচে পাকিস্তানের ছুঁড়ে দেওয়া ৩৩৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে ভারত। লন্ডনের ওভালে রবিবার (১৮ জুন) মুখোমুখি হয়েছে এ দুই দল।

এদিন শুরুতেই উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ের শুরু হয় ভারতের। এই ধারাবাহিকতায় ৮০ রান তোলার আগেই ৬ উইকেট হারিয়ে বসেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। এ অবস্থায় প্রথম সারির আর কোন ব্যাটসম্যান না থাকায় শিরোপা জয়ের পথে এগিয়ে যাচ্ছে ভারত।

প্রথম তিন উইকেট তুলে নিয়ে এদিন ভারত শিবিরে ধস নামান পাক পেসার মোহাম্মদ আমির। এরপরই ২ উইকেট তুলে নিয়ে ভারতকে বিপর্যয়ের মহাসমুদ্রে ঠেলে দেন পাক স্পিনার শাদাব খান। একটি উইকেট নিয়েছেন পেসার হাসান আলী।

ঐতিহাসিক এ ম্যাচটিতে এদিন টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এই সুবাদে আমন্ত্রণ পেয়ে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৩৮ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান।

জবাবে, জয়ের জন্যে ৩৩৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। ইনিংস শুরুর ওভারের তৃতীয় বলেই আমিরের এলবিডাব্লিউলের ফাঁদে পড়ে শূণ্য রানে বিদায় নিয়েছেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা। এর পরপরই আমিরের শিকার হয়ে সাজঘরের পথ ধরেছেন দলপতি বিরাট কোহলি। ফেরার আগে তিনি করেছেন মাত্র ৫ রান।
শেষ খবর পাওয়া অব্দি ভারতের সংগ্রহ ১৯ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ৮৯ রান। ক্রিজে আছেন হারদিক পান্ডেয়া এবং কেদার জাদেজা।

অভিষেকের পর তৃতীয় ম্যাচে এসে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন নবীন পাক ওপেনার ফখর জামান। সেঞ্চুরির পর ১০৬ বলে ১১৪ রান করে হারদিক পান্ডেয়ার শিকার হয়েছেন ফখর। জাদেজার হাতে ক্যাচ তোলার আগে এই ইনিংসটিতে তিনি হাঁকিয়েছেন ১২ চার ও ৩ ছক্কা। আর ৫৯ রানে রান আউটের শিকার হয়েছেন অপর ওপেনার আজহার আলী। সাজঘরে ফেরার আগে তিনি সংগ্রহ করেছেন ৫৯ রান।

মোহাম্মাদ হাফিজ করেছেন হার না মানা ৫৭ রান। এসময় তার সঙ্গি হয়েছেন অপরাজিত ২৫ রান করা ইমাদ ওয়াসিম। এছাড়া বাবর আজম ৪৬ ও সোয়েব মালিক করেছেন ১২ রান।

ভারতের পক্ষে একটি করে উইকেট নিয়েছেন কেদার যাদব, ভুবেণেশ্বর কুমার ও হারদিক পান্ডেয়া।

পাকিস্তান একাদশ : আজহার আলি, ফখর জামান, বাবর আজম, মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটকিপার), ইমাদ ওয়াসিম, মোহাম্মদ আমির, শাদাব খান, হাসান আলি, জুনাইদ খান।
ভারত একাদশ : রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), যুবরাজ সিং, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটকিপার), কেদার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ভুবনেশ্বর কুমার, জাস্প্রিত বুমরাহ।

Advertisements