মির্জা ফখরুলের গাড়ি বহরে হামলা, ২৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ

1
ব্রেকিং নিউজ
  •                                                                                                                                    
.

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের নেতৃত্বে রাঙ্গামাটি যাবার পথে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া এলাকায় বিএনপির গাড়ি বহরে হামলার ঘটনার ৩ দিন পর আজ বুধবার ২৬ জনকে আসামী করে আদালতে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগে ২৬ জনের নাম উল্লেখ করে ছাড়াও অজ্ঞাতনামা আরও ২৫/৩০ জনকে আসামি করা হয়েছে। অাসামীরা সবাই রাঙ্গুনিয়ার বাসিন্দা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে জানান বাদী এনামুল হক।

তারা হলেন, মো. সরওয়ার, নাজিমুদ্দিন বাদশা, রাসেল, মহসীন, জাহেদ, আলমগীর, নঈমুল ইসলাম, শিমুল গুপ্ত, পাভেল বড়ুয়া, মো. জাহেদ, ইকবাল হোসেন বাবলু, নাহিম, মো. ইউনুস, শামসুজ্জোহা সিকদার আরজু, আবু তৈয়ব, এনামুল হক, রাসেল, সাইফুল, মাহাবুব, আনোয়ার, নেসার উল্লাহ, বেলাল, মুজাহিদ, বাপ্পা, মো. হারুন, জাহাঙ্গীর আলম বাদশা।

দুপুরে বিএনপি পন্থী আইনজীবি ও সাবেক পিপি এনামুল হক বাদী হয়ে দ্রুত বিচার আইনের ৪ ও ৫ ধারায়  ২৬ জনের নাম উল্লেখ্য করে অভিযোগটি দাখিল করেন চট্টগ্রাম দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতে। চীফ জুডেশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আ স ম শহিদুল্লাহ কায়সার অভিযোগ আমলে নিয়ে পরে শুনানী অপেক্ষামা্ন রেখেছেন।

মামলার বাদী এনামুল হক পাঠক ডট নিউজকে অভিযোগ দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন. আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়েছেন। পরে শুনানী করা হবে বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নীল নকশা বাস্তবায়ন করতে এবং বিএনপিকে নেতৃত্ব শূন্য করতেই এ হামলা চালানো হয়েছে।

উল্লেখ্য- গত ১১ জুন রবিবার রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত দেখতে এবং দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ দিতে যাবার পথে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার ইছাখালি এলাকায় বিএনপি মহাসচিবের গাড়িবহরহামলা চালায় যুবলীগ ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা। এ সময় গাড়ি ভাঙচুর এবং বিএনপি নেতৃবৃন্দের উপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে সন্ত্রাসীরা।

গাড়িবহরে মির্জা ফখরুলের নেতৃত্বে সাত সদস্যের প্রতিনিধি দলে স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান রুহুল আলম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীমও ছিলেন।

ঘটনার পর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ওই হামলার জন্য আওয়ামী লীগের স্থানীয় সংসদ সদস্য হাছান মাহমুদকে দায়ী করেন। তবে এ অভিযোগ প্রত্যাখান করে হাছান মাহমুদ বলেছিলেন, মির্জা ফখরুলদের গাড়ির ধাক্কায় স্থানীয় দুজন আহত হলে বিক্ষুদ্ধ স্থানীয় বাসিন্দারা হামলা করেছে। অবশ্য পরদিন তিনি সাংবাদিকদের বলেন হামলাটি স্থানীয় বিএনপির দুই গ্রুপের কোন্দলের কারণে হয়েছে।