চট্টগ্রামে ডিবি’র এএসআই বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

0
.

চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) ডিবিতে কর্মরত থাকা কালে হামিদুল ইসলামের (৩৬) নামে এক এএসআই বিরুদ্ধে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে আবাসিক হোটেলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন এক নারী।

এনিয়ে আদালতে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন উক্ত নারী। অভিযুক্ত পুলিশ হামিদুল ইসলাম বর্তমানে রংপুর রেঞ্জে কর্মরত রয়েছেন বলে জানা গেছে।

আজ ২২ জুন বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক রোখসানা বেগমের আদালতে মামলাটি দায়ের করার পর আদালত মামলা আমলে নিয়ে ধর্ষিতা নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করোনোর আদেশ দিয়েছেন।

বাদিনীর আইনজীবী মুহাম্মদ আব্দুল হামিদ এ খবর নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বাদীনী আদালতে অভিযোগ করেছেন, পূর্ব পরিচয়ের সুত্র ধরে বাদীনীর সাথে সিএমপির বিশেষ শাখায় (সিটি এসবি) এএসআই হামিদুল ইসলামের পরিচয় হয়। তখন তিনি সিএমপির গোয়েন্দা ইউনিটে কর্মরত ছিলেন। (বর্তমানে তিনি রংপুর রেঞ্জে কর্মরত)।

পরিচয়ের সুত্র ধরে তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এবং বিয়ে করার আশ্বাস দেয় এএসআই হামিদুল ইসলাম। এর পর তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে গিয়ে বিভিন্ন সময় কাটান। কিন্তু পরে হামিদুল বিয়ে না করে তালবাহানা করতে থাকে।

এর মধ্যে একবার তার বাদীনীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে গর্ভপাত করে প্রথম সন্তান নষ্ট করে ফেলা হয় বলে আদালতকে জানান ভিকটিম। পরে হামিদুল সর্ম্পক এবং বিয়ে করতে অস্বিকার করলে এনিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে গত ফেব্রুয়ারীর দিকে সিএমপির বিশেষ শাখায় হামিদের অফিসে বসেই বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন এ নারী। পরে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে সুস্থ্য হওয়ার পর মামলা করার উদ্যো নিলে পুলিশ পরিচয়ে অজ্ঞাত ফোন নম্বার থেকে মামলা না করার জন্য হুমকি দেয় বলে আদালতকে অভিহিত করেন।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন