মেজর (অব.) জিয়াউদ্দিন আর নেই

0
মেজর জেনারেল (অব) জিয়া উদ্দিন।

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার সাক্ষী ও মহান মুক্তিযুদ্ধে ৯নং সেক্টরের সাব সেক্টর কমান্ডার, পিরোজপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান মেজর (অব.) জিয়াউদ্দিন আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

তার ছোট ভাই কামাল উদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে আজ শুক্রবার বাংলাদেশ সময়ে সকালে ইন্তেকাল করেন তিনি।

মেজর জিয়াউদ্দিনকে গত ২৯ জুন গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তার কিডনি ও লিভার অকেজো হয়েছিল। তার অবস্থার অবনতি হতে থাকলে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় তাকে সিঙ্গাপুরে পাঠান হয়েছিল।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে গেছেন। জিয়াউদ্দিন পিরোজপুর শহরের পাড়েরহাট রোডের মরহুম আফতাব উদ্দিনের পুত্র।

বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে এই মুক্তিযোদ্ধার ভূমিকা ছিল অনন্য। তাকে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে মুক্তিবাহিনীর জেড ফোর্সের অধীন প্রথম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের অধিনায়ক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।

চাকরিতে থাকা অবস্থায় ১৯৭৪ সালে সাপ্তাহিক হলিডে পত্রিকায় নিবন্ধ লেখার জন্য শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়। পর তিনি পূর্ব বাংলার সর্বহারা পার্টিতে যোগ দেন। এবং ১৯৮৯-৯১ সালে বিপুল ভোটে পিরোজপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

মুক্তিযুদ্ধে নিজের ও অন্যদের অংশগ্রহণ এবং যুদ্ধের বিভিন্ন দিক নিয়ে তিনি ‘সুন্দরবন সমরে ও সুষমায়’ নামে একটি বই লিখেছেন মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন।

উল্লেখ্য মেজর জিয়াউদ্দিন বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার অন্যতম সাক্ষী ছিলেন।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন