আওয়ামী লীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

0
Awame
আওয়ামী লীগের দলীয় পতাকা।

আজ ২৩ জুন বৃহস্পতিবার। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ১৯৪৯ সালের এই দিনে পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী রোজ গার্ডেনে দলটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।

প্রতিষ্ঠাকালে সংগঠনটির নাম ছিল- আওয়ামী মুসলিম লীগ। পরে সময়ের পরিবর্তন ও প্রয়োজনে ‘আওয়ামী লীগ’ নামে পথচলা শুরু করে।

প্রতিষ্ঠাকালে দলটির সভাপতি ছিলেন মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী এবং সাধারণ সম্পাদক ছিলেন শামসুল হক। শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই দলটি পাকিস্তানি সামরিক শাসন, জুলুম, অত্যাচার-নির্যাতন ও শোষণের বিরুদ্ধে আন্দোলন-সংগ্রামে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। ৫২’র ভাষা আন্দোলন, ৫৪’র যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, আইয়ুব খানের সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলন, ৬৬’র ছয় দফা আন্দোলন, ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান ও ৭১’র মহান মুক্তিযুদ্ধে ঐতিহাসিক নেতৃত্ব দেয় দলটি।

৬৭বছর পূর্তি উপলক্ষে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কর্মসূচির বিষয়ে জানিয়েছেন।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ২৩ জুন সূর্যোদয়ের সময় দলীয় কার্যালয়ে পতাকা উত্তোলন। সকাল সাড়ে ৮টায় ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং বেলা আড়াইটায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা। এতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করবেন। আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করবেন রাজনীতিবিদসহ বরেণ্য ব্যক্তিরা।

দলের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এসব কর্মসূচি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের জন্য আওয়ামী লীগ এবং এর সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সব জেলা, উপজেলাসহ সব স্তরের নেতা-কর্মী, সমর্থকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

pm
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেখ হাসিনার

আওয়ামী লীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজধানীর ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর সড়কে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টায় প্রথমে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিজে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

পরে আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দলের শীর্ষ নেতাদের নিয়ে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান শেখ হাসিনা।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কর্মসূচির উদ্বোধন করেন তিনি। এরপর শান্তির প্রতীক সাদা পায়রা অবমুক্ত করেন ও বেলুন উড়িয়ে দেন।

এ দিকে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, আওয়ামী লীগের ইতিহাস সংগ্রামের ইতিহাস। আওয়ামী লীগের ইতিহাস অর্জনের ইতিহাস।

দেশের চলমান হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া হতাশ হয়ে আওয়ামী লীগের ওপর দোষ চাপাচ্ছেন। সরকার সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের বিষয়ে জিরো টলারেন্স অবস্থানে রয়েছে সরকার। এগুলো নির্মূল করা হবে। অচিরেই এ সব গুপ্তহত্যা বন্ধ হবে।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন