সাতকানিয়ায় প্রবাসীকে কুপিয়ে আহত

2
.

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলায় মুখোশধারী সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি দা’য়ের কোপ ও বাটামের আঘাতে মোহাম্মদ আলী (৩৪) নামে এক দুবাই প্রবাসী গুরুতর আহত হয়েছেন।

বুধবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার চরতী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড গদারঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মোহাম্মদ আলী চরতির গদারঘোনা মধ্যম দুরদুরী এলাকার মৃত নুর আহমদের ছেলে।

আহত মোহাম্মদ আলীর অভিযোগ, ‘ভাইদের সাথে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল তাঁর। তাই ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে পিটিয়ে তাঁকে আহত করা হয়েছে।’

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মোহাম্মদ আলী তাঁর বাড়ির পশ্চিমে গুচ্ছগ্রামের সামনে চায়ের দোকানে স্থানীয় মেম্বার ও অন্যান্য বন্ধুদের সাথে আড্ডা শেষে বাড়ি ফিরছিল। তিনি (মোহাম্মদ আলী) বড়ভাইদের বাড়ির উঠানের সামনে দিয়ে নিজ বাড়ি যাওয়ার মুহূর্তে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা মুখোশধারী ৫/৬ জন সন্ত্রাসী তাঁকে দা দিয়ে কুপিয়ে ও গাছের বাটাম দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ফেলে চলে যায়।

আহত মোহাম্মদ আলী মুঠোফোনে এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার ভাই জহির আহমদ ও খাইর আহমদের সাথে জায়গা জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। আমার ভাইরা বিদেশ থেকে বিভিন্ন সময় মোবাইলে ফোনে আমাকে হুমকি ধমকি দিত। গত কিছুদিন আগে আমার মেজভাই জহির আহমদের শ্বশুরবাড়ির লোকজন আমার উপর হামলার চেষ্টা করে। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তাঁরা পালিয়ে যায়। এছাড়া আমি বিদেশ থেকে দেশে আসার পর বাড়ির কাজ শুরু করলে তাঁরা আমার উপর এ ধরণের বিভিন্ন হুমকি–ধমকি দেয়া শুরু করে।

এ ব্যাপারে চরতির ৬নং ওয়ার্ডের ইউ.পি সদস্য মো. জাকির হোসেন মুঠোফোনে বলেন, আমাদের সাথে দোকানে আড্ডা দিয়ে মোহাম্মদ আলী তাঁর বাড়ির উঠান পর্যন্ত পৌঁছলে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার দেয়। পরে আমিসহ দোকানে থাকা আরো কয়েকজন লোক তাঁর বাড়ির উঠানে গিয়ে দেখি সে মাঠিতে গড়াগড়ি করছে এবং তাঁর মাথা দিয়ে প্রচুর রক্ত বের হচ্ছে। তাঁর মাথায় ধারালো দা অথবা কিরিচের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া তাঁর শরীরে গাছ দিয়ে পেটানোর চিহ্ন দেখা গেছে।

সাতকানিয়া থানার এস.আই জাহিদুল ইসলাম বলেন, চরতির গদারঘোনা এলাকায় একজন প্রবাসীকে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে আহত করেছে বলে শুনেছি।

Advertisements