বিদেশীসহ ২ জনকে উদ্ধার: পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত র‌্যাব, পুলিশ

0
160701221739_gulshan_preparations_youth_shot_640x360_bbc_nocredit
গুলশানে প্রস্তুত রাখা হয়েছে সাজোয়া যানসহ বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র। ছবি বিবিসি

গুলশানে জঙ্গীদের আক্রমণের শিকার হোটেল থেকে দুজনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। রাত আড়াইটার পর তাদের হোটেল কম্পাউণ্ড থেকে বের করে আনা হয়। এর মধ্যে একজন আর্জেন্টিনার নাগরিক আর অন্যজন বাংলাদেশী।

গুলশান এলাকা থেকে বিবিসির সংবাদদাতা পুলিশ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানাচ্ছেন যে উদ্ধার করা দুজনের মধ্যে বাংলাদেশী ব্যক্তি কিছুটা আড়াল হয়ে গেইটের কাছাকাছি আসা মাত্রই পুলিশের সোয়াত দলের সদস্যরা তাকে ছোঁ মেরে নিয়ে আসে।

অন্যদিকে আর্জেন্টাইন নাগরিক ভবনের আড়ালে দাঁড়িয়ে ছিলেন। তাকে দেখে ইশারায় আরও এগিয়ে আসতে বলে পুলিশ সদস্যরা।

কিছুটা কাছাকাছি আসা মাত্র তাকেও কম্পাউণ্ডের ভেতর থেকে তুলে নিয়ে আসে পুলিশ। গুলশানের হোলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টের চারদিক ঘিরে রেখেছে পুলিশ, কমান্ডো, র‍্যাব, বিজিবি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। ধারণা করা হচ্ছে যে কোন মূহুর্তে কমান্ডো স্টাইলে হামলা চালাতে পারেনপুলিশ র‌্যাব, সোয়াত এবং নৌ-বাহিনীর টিম।

948bb7493ecc2eb9d74a36609bbfb9ca-13
গুলশানে স্প্যানিস রেস্টুরেন্টে হামলার জন্য প্রস্তুতি আইন শৃংখলা বাহিনীর।

তবে রাত চারটায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অস্ত্রধারীদের সাথে কোন যোগাযোগ স্থাপন করা যায়নি।

সোয়াত টীম সহ পুলিশের কমান্ডো, র‍্যাব ও বিজিবি সদস্যরা রেস্তোরাটি একেবারে কাছেই অবস্থান করছে।

সেখানে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারীর সব ধরনের সরঞ্জাম ও যানবাহন রাখা আছে কাছেই। ৭৯ নম্বর রোডের মাঝামাঝি স্থানে রয়েছে গণমাধ্যম কর্মীরাও।

ওই সড়কের শেষ দিকেই আক্রমণের শিকার রেস্টুরেন্টের অবস্থান। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ কর্মকর্তাদের কাউকে এগিয়ে আসতে দেখলেই নতুন তথ্যের আসায় ঘিরে ধরছেন গণমাধ্যম কর্মীরা।

 

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন