কারওয়ান বাজারে আগুন, পুড়েছে দেড় শতাধিক দোকান

0

রাজধানীর কারওয়ান বাজারের হাসিনা মার্কেটে আজ রোববার রাতে আগুন লাগে। প্রায় দুই ঘণ্টা পর রাত দশটার দিকে সেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস। আগুনে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহমেদের বরাত দিয়ে বাসস জানায়, আগুন নির্বাপণে ২৬টি ইউনিট কাজ করে। রাত সোয়া ১০টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। মার্কেটটি কাঠ এবং টিন দিয়ে তৈরি হওয়ায় আগুন লাগার পর তা দ্রুত তা ছড়িয়ে পড়ে।
ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়, হাসিনা মার্কেটের নিচতলায় একটি দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। তা মুহূর্তেই পাশের দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। বাতাসের কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে বেগ পেতে হয়। ওই মার্কেটে বিভিন্ন নিত্যপণ্যের দোকান, আড়ত, লেপ-তোশক ও খাবারে হোটেল দোকান ছিল।
ওই মার্কেটের কয়েকজন ব্যবসায়ীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মার্কেটটিতে বৈধ দোকানের সংখ্যা ১৮৬ টি। আগুনে বেশির ভাগ দোকান পুড়ে গেছে। আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে কিছু ব্যবসায়ী দোকান থেকে টাকা-পয়সা ও অল্প কিছু মালপত্র সরিয়ে নিতে সক্ষম হন। কিন্তু বেশির ভাগ মালিকই তা করতে পারেননি। কয়েকজন ব্যবসায়ী অভিযোগ করেন, ফায়ার সার্ভিস তৎপর হলে এত বেশি ক্ষয়ক্ষতি হতো না। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন ব্যবসায়ী অভিযোগ করেন, এখানে বহুতল ভবন নির্মাণ করার কথা রয়েছে। উচ্ছেদ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই আগুন লাগানো হতে পারে।
ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশনস) শাকিল নেওয়াজ বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক বলেন, হাসিনা মার্কেটের আগুন একটি দুর্ঘটনামাত্র। ব্যবসায়ীদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, এটা দুঃখজনক ঘটনা। তবে উচ্ছেদ প্রক্রিয়ার সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই।
এদিকে আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ব্যবসায়ীদের বড় ক্ষতি হয়ে গেছে। এই ক্ষতি পুষিয়ে দেওয়ার জন্য যা করা দরকার, সরকার তা করার চেষ্টা করবে।
ছবিতে কারওয়ান বাজারের আগুন

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন