চট্টগ্রামের ৩০ গ্রামে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর

0
Ctg-Eid-Namaj-Pic
সাতকানিয়ার মির্জাখিলে ঈদ জামাত।

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া চন্দনাইশসহ বেশ কিছু এলাকায় একদিন আগেই আজ বুধবার পালিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। চট্টগ্রামের প্রায় ৩০টি গ্রামে সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে দুই পীরের ভক্তরা সকালে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছে।

চন্দনাইশের মমতাজিয়া দরবার এবং সাতকানিয়ার মীর্জার খিল দরবার শরীফের কয়েক হাজার ভক্ত ঈদের নামাজ আদায় করেন। সৌদী আরবের সাথে মিল রেখে তারা প্রতিবছর একদিন আগেই দুই ঈদসহ ধর্মী অনুষ্ঠান পালন করে আসছেন।

মির্জারখীল দরবার শরীফ সূত্রমতে, সাতকানিয়ার মির্জাখীল, গাটিয়া ডেঙ্গা, মাদার্শা, চন্দনাইশের কাঞ্চননগর, হারাল, বাইনজুরি, কানাই মাদারি, সাতবাড়িয়া, বরকল, দোহাজারী, জামিরজুরি, বাঁশখালীর কালিপুর, চাম্বল, শেখের খীল, ডোংরা, ছনুয়া, আনোয়ারার বরুমছড়া, তৈলারদ্বীপ, লোহাগাড়ার পুটিবিলা, কলাউজান, বড়হাতিয়া এবং পটিয়া, বোয়ালখালী, হাটহাজারী, সন্দ্বীপ, রাউজান, সীতাকু-, ফটিকছড়ির কিছু এলাকাসহ চট্টগ্রামের মোট ৩০টি গ্রামের কিছু সংখ্যক মানুষ আজ ঈদ-উল ফিতর উদযাপন করছেন।

চন্দনাইশের জাগিরিয়া মমতাজিয়া দরবার শরীফে প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে সকাল সোয়া নয়টায়। এই জামাতে ইমামতি করছেন দরবার শরীফের পীর শাহছুফী মাওলানা মোহাম্মদ আলী।

মমতাজিয়া দরবার শরীফের খাদেম মতি মিয়া মনসুর জানিয়েছেন, কয়েক হাজার মানুষ প্রধান জামাতে অংশ নিয়েছে, চন্দনাইশের প্রধান জামাত ছাড়াও দক্ষিন চট্টগ্রামের আরো কয়েকটি স্থানে এই মাজারের ভক্তরা ঈদ পালন করেছেন।

তিনি আরো জানান, “প্রায় আড়াই’শ বছর ধরে সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে এই মাজার শরীফে ঈদুল ফিতর পালন করা হয়।”

অন্যদিকে সাতকানিয়া মীর্জারখিল দরবার শরীফে সকাল ১০টায় ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন ভক্তরা। দরবার শরীফের পীর হয়রত মৌলানা মোহাম্মদ আরেফুল হাই এর বড় ছেলে মুফতি মৌলানা মোহাম্মদ মকছুদুর রহমান এখানে ঈদের নামাজে ইমামতি করেছেন।

প্রায় দুশ বছর আগে মীর্জারখিল দরবার শরীফের পীর মাওলানা মুখলেছুর রহমান (রহঃ) পৃথিবীর অন্য যেকোন দেশে চাঁদ দেখা গেলেই রোজা, ঈদ এবং কোরবানী পালনের নিয়ম প্রবর্তন করেন। এরপর থেকে সারাদেশে মির্জাখীল দরবারের অনুসারীরা এ নিয়ন পালন করে আসছেন।

এই দুই মাজারের ভক্তদের দক্ষিন চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় কমপক্ষে ৫০টি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন