১৩ টি অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গুলি উদ্ধার
উড়ির চরে র‌্যাবের সাখে বন্দুক যুদ্ধে শীর্ষ জলদস্যু ইব্রাহিম মাঝি নিহত

0
.

র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত শীর্ষ জলদস্যু ইব্রাহিম মাঝি (৪৫) নিহত হয়েছে। আজ শুক্রবার ভোরে চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলা এবং নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সীমানা এলাকা উড়ি র চরের দূর্গম “চর এলাহী” এলাকায় সংঘবদ্ধ জলদস্যূদের সাথে এ বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনার পর র‌্যাব-৭ ঘটনাস্থল থেকে ১৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে।

র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের সিনিয়র সহকারী পরিচালক মিডিয়া মিমতানুর রহমান পাঠক ডট নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তিনি বলেন, দুর্গম উড়িরচরে দীর্ঘদিন ধরে জলদস্যুরা কৃষকদের গরু-মহিষ ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এ অভিযোগ পাওয়ার পর র‌্যাবের একটি টিম সেখানে টহল দেয়া শুরু করে।

গতকাল রাতে একটি ট্রলারের গতিবিধি সন্দেহজনক হলে থামানোর জন্য সংকেত দেয় র‌্যাব দল। কিন্তু ট্রলারটি নির্দেশ অমান্য করে উড়ির চরে নিয়ে যায় এবং আরোহীরা পালিয়ে যেতে থাকে। এক সময় তারা  র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি চালাতে থাকলে  র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। পরে সন্ত্রাসীরা টিকতে না পেরে পালিয়ে যায়। এরপর ওই জায়গায় তল্লাশি করে ঘটনাস্থল থেকে ১৩ টি অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গুলি উদ্ধার করেছে এবং এক ব্যক্তির মরদেহ পাওয়া যায়।  সেটি ডাকাত ইব্রাহিম মাঝির বলে শনাক্ত করেন স্থানীয় লোকজন।

নিহত ইব্রাহিম মাঝি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ২০১৪, ২০১৫ ও ২০১৭ সালের তালিকাভুক্ত “শীর্ষ জলদস্যু”। তার বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালী জেলার বিভিন্ন থানায় খুন, ডাকাতি, দস্যুতা, অপহরণ ও চাঁদাবাজির অভিযোগে ৯ টির অধিক মামলা রয়েছে বলে র‌্যাব জানায়।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন