প্রধান আসামী শাহজাহান ধরাছোয়ার বাইরে

কেএসআরএম’র ইফতার বিতরণ ট্রজেডি, ৪ জনকে গ্রেফতার

1
.

চট্টগ্রামের শিল্প প্রতিষ্ঠান কেএসআরএম এর ইফতার সামগ্রী বিতরণকালে পদদলিত হয়ে ১১ নারী নিহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশ ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  তবে মামলার প্রধান আসামী শিল্পপতি শাহজানকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুর্ঘটনাস্থল কবির স্টিল রিরোলিং মিলের (কেএসআরএম) মালিক শাহজাহানের বাড়ীর আশেপাশের এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে সাতকানিয়া থানা পুলিশ নিশ্চিত করেছেন।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল হোসেন  বলেন, সকালে নিহত এক নারীর স্বামী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করার পর অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  তারা ঘটনার সময় ইফতার সামগ্রী বিতরণের দায়িত্বে ছিল বলে আমরা জানতে পেরেছি।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- সাতকানিয়ার পূর্ব গাটিয়াডাঙ্গার জাকির হোসেনের ছেলে মো. ইদ্রিছ (২৬), মক্কার বাড়ির ছিদ্দিক আহমদের ছেলে মুরিদুল আলম প্রকাশ মুরাদ (২৭),আমিলাইশ এলাকার সোলায়মানের ছেলে হাবিব আহমদ সাহেদ (৩২) এবং হাঙ্গরমুখ (খন্দকার পাড়া) এলাকার মো. ইদ্রিছের ছেলে আজগর আলী (২৮)।

উল্লেখ্য গতকাল সোমবার (১৪ মে) দুপুরে উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নের গাটিয়াডাঙ্গা গ্রামের হাঙ্গরমুখ এলাকার কাদেরিয়া মুঈনুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা মাঠে কেএসঅারএম এর পক্ষে ইফতার সামগ্রী ও জাকাত দেয়ার ঘোষণায় ২৫ থেকে ৩০ হাজার নারী জড়ো হলে ধাক্কাধাক্কিতে ভীড়ের চাপে পদদলিত হয়ে ঘটনাস্থলে ৯ জন এবং হাসপাতালে নেয়ার পথে ২ জন মারা যায়।  আহত হয় অন্তত ৩০ জন।

অবশ্য পুলিশের পক্ষ থেকে মৃত্যুর সংখ্যা ১০ জন্য এবং কেএসআরএম’র পক্ষে হিটস্টোকে ৯ জনের মৃত্যুর কথা দাবী করা হয়।

এ ঘটনার মঙ্গলবার সকালে কেএসআরএম ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ শাহজাহানকে প্রধান আসামি করে নিহত হাসিনা আক্তারের স্বামী মোহাম্মদ ইসলাম বাদী হয়ে সাতকানিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় অবহেলায় মৃত্যুর কারণ দেখিয়ে দণ্ডবিধি ৩০৪ (ক) ও ৩৪ ধারায় আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।