ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু (পর্ব ১)

3
ব্রেকিং নিউজ
  •                 
শওকত বিন আশরাফ

আমরা যখন অসুস্থ হই তখন মৃত্যুর ভয় আমাদেরকে পেয়ে বসে।তাই চিকিৎসার জন্য আমরা ডাক্তারের কাছে ছুটি। আশা করি সঠিক চিকিৎসা পেলে সুস্থ হব, আর চিকিৎসা পাওয়ার পরও যদি আপনার আমার স্বাভাবিক মৃত্যুর হয় তাহলে মারা যাবো।এই মৃত্যুতে দুঃখ আছে কিন্তু ক্ষোভ নেই। কিন্তু চিকিৎসকের অবহেলা বা ভুল চিকিৎসার কারণে যদি কোন রোগীর মৃত্যু হয় সেই মৃত্যু মেনে নেয়ার ব্যপারে স্বাস্থ্য সেবা কেমন সেই প্রশ্ন আসে।

রোগীর আপনজনেরা যেমন তেমন হাসপাতাল বা ডাক্তার দেখাতে চান না। তাই তো ভাল ডাক্তারের এপয়েন্টমেন্ট পাওয়া কঠিন। ভাল ডাক্তার দেখাতে পারবেন এমন সাধ্য বা সামর্থ সবার থাকে না। কিন্তু ভাল বা সাধারণ ডাক্তারের চিকিৎসায় রোগ ভাল হওয়া না হওয়া এক কথা, আর ডাক্তারের অবহেলা বা ভুল চিকিৎসায় মারা যাওয়া সম্পূর্ণ ভিন্ন কথা। আমি সেই প্রসঙ্গেই আসতে চাচ্ছি।

.

চিকিৎসকের অবহেলা ও ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুকে শুধু অস্বাভাবিক মৃত্যু বলা ঠিক নয়, এটা এক ধরণের হত্যাকাণ্ড। ঠিক যেমন বেপরোয়া গাড়ী চালানোর ক্ষেত্রে মৃত্যুকে শুধু অস্বাভাবিক মৃত্যু বলা ঠিক নয়, এটা লাইসেন্স দেয়া হত্যাকাণ্ড।

অতিতে আমরা দেখেছি বিশিষ্ট সঙ্গীতজ্ঞ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের শিক্ষক মৃদুল কান্তি চক্রবর্তী ল্যাব এইড প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসায় অবহেলার কারণে মারা গেছেন। তখনই চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগ আসে। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ হয়, হাইকোর্ট থেকে দায়িত্বশীল তিন ডাক্তারকে তলব করে নির্দেশনা জারী করা হয়। শেষ পর্যন্ত ল্যাব এইড কর্তৃপক্ষ দোষ স্বীকার করে মৃদুল কান্তির পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার কথা জানায়।

পঞ্চাশ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ পেয়েছে মৃদুল কান্তির পরিবার। কিন্তু সন্তান তার বাবা হারানোর ও স্ত্রী তার স্বামী হারানোর দুঃখ মোচন হয়েছে বলা যাবে না। যিনি গেছেন তাঁর জীবনের মূল্য টাকা দিয়ে নির্ধারন করা যাবে না। কাজেই এটা ক্ষতিপূরণ নয়, এটা ল্যাব এইডের অপরাধ স্বীকারের মূল্য। একটি ব্যায়বহুল হাসপাতাল হিসেবে ল্যাব এইড যা আয় করে ৫০ লাখ টাকা দেয়া তাদের জন্য খুব কঠিন কিছু নয়, তাই তারা তড়িঘড়ি দিয়েছে, কারণ ল্যাব এইডে এটাই অবহেলা ও ভুল চিকিৎসার একমাত্র ঘটনা নয়, আরও অনেক আছে। ভুক্তভুগীরা কিছু প্রতিবাদ করলেও এক সময় থেমে গেছে, কোন প্রতিকার না পেয়েই।

যদি সবাইকে ক্ষতিপূরণ দেয় তাহলে তাদের কোটি কোটি টাকা লাগবে। মনে পড়ছে নায়ক মান্নার মৃত্যুও ঘটেছে ইউনাটেডের মতো একটি ব্যায়বহুল প্রাইভেট হাসপাতালে। মান্নার স্ত্রী অনেক অভিযোগ করেও কোন সুরাহা করতে পারেন নি। সংবাদ পাঠিকা রাশেদা মহিউদ্দিনও ভুল চিকিৎসায় মারা গেছেন বলে অভিযোগ আছে তবে এই পর্ষন্ত ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় মারা যাওয়া কোন হত্যাকান্ডের বিচার হয়নি।
(চলবে)

“পাঠকের কলাম” বিভাগের সকল সংবাদ, চিত্র পাঠকের একান্ত নিজস্ব মতামত, এই বিভাগে প্রকাশিত সকল সংবাদ পাঠক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। তা্ই এ বিভাগে প্রকাশিত কোন সংবাদের জন্য পাঠক.নিউজ কর্তৃপক্ষ কোনো ভাবেই দায়ী নয়।