১৫ আগষ্টের দেশী ও আন্তর্জাতিক চক্রান্তকারীরা এখনো সক্রিয়-চট্টগ্রামে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

0
.

১৫ই আগষ্টের ঘাতকরা এখনো সক্রিয় উল্লেখ্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ১৫ই কেন হলো কিভাবে হলো সবই আপনারা জানেন। এটি শুধু দেশীয় নয়, আন্তজাতিক চক্রান্ত ছিল। সেই আন্তজাতিক চক্র এখনো সক্রিয় রয়েছে। তারা একের পর এক চক্রান্ত করেই যাচ্ছে দেশীয় ঘাতক নিয়ে।

তিনি আজ রবিবার দুপুরে (১২ অাগস্ট) নগরীর জিইসি কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ১৫আগষ্ট বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতাসহ আমরা অনেকককে হারিয়েছি। তারপর আমাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ২১বছর। আমার দেখেছি যুদ্ধাপরাধীদের গাড়ীতে জাতীয় পতাকা উড়ছে। ১৫আগষ্টের পর বিদেশীরা আমাদের প্রশ্ন করেছিলো তোমার কেমন জাতি যে তোমরা জাতির পিতাকে হত্যা করো।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশের মানুষ বিশ্বাস করে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে তার সুযোগ্য কণ্যা শেখ হাসিনা অবস্থান সৃষ্টি করেছে। তার নেতৃত্বে তার সুযোগ্য নেতৃবৃন্দরা দেশ উন্নয়নে সহযোগীতা করে যাচ্ছে। যার ফসলে দুর্নীতিতে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ান দেশ আজ সফল বাংলাদেশ। খাদ্য ঘাটতির দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ং সম্পুর্ণ।  সন্ত্রাস জঙ্গিবাদের দেশ আজ শান্তি ও সুশৃঙ্খল  এবং নিরাপত্তার বাংলাদেশ।

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ভুমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, বিগত সকল সংসদ নির্বাচনের চাইতেও আগামী সংসদ নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পুনরায় নির্বাচিত করে দেশ উন্নয়নে অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। পাশাপাশি আগামী সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সব কয়টা আসন প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দেওয়ার কথা উল্লেখ করেন ভুমিমন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন,৭৫ এর ঘাতকরা দেশকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্রের জন্যই জন্মগ্রহণ করেছে। এখনো তারা ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের শুসৃঙ্খল আন্দোলনেও তারা কৌশলে প্রবেশ করে সারাদেশে নৈরাজ্য সৃষ্টির যে পায়তারা করেছে তাই প্রমাণ করে তারা এখনো ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোসলেম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন ও উপ দপ্তর সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

সভা শুরুর আগে জাতির জনকসহ ১৫ আগষ্টে নিহত সকলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করেন। অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম নগর, দক্ষিন ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

*জিইসি কনভেনশন সেন্টারে চলছে দ. জেলা আওয়ামী লীগের সভা

*১২ আগস্ট দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের শোক দিবসের আলোচনা সভা

 

 

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন