ঈদে সুরভিত থাকুন প্রাকৃতিক উপায়ে

0

ঈদে সাজগোজ, জমকালো পোশাক হেয়ার স্টাইল, মেকআপ সবই নিশ্চই তৈরি আছে, তাই না? কিন্তু সব সাজসজ্জা শুধু পোশাক আর মেকআপের মধ্যেই সিমাবদ্ধ নয়। কারণ আপনি নিজেই চিন্তা করে দেখুন, যখন আপনি সুন্দর পোশাক পরে, সাজগোজ করে বন্ধুদের নিয়ে আড্ডা দিচ্ছে। অথবা কোথাও বেড়াতে গিয়েছেন। আর তখনই খেয়াল হল আপনার গায়ের ঘাম ও ঘামের দূর্গন্ধে নিজের কাছেই খারাপ লাগছে। কারণ অতিরিক্ত ঘাম হওয়া এমনেতেই একটি বিব্রতকর সমস্যা। ঘেমে পোশাকের হলদে দাগ পড়ে যায়। এছাড়া ঘামের দুর্গন্ধের কারণেও অনেক সময় বেড়ে যায় বিড়ম্বনা। আসুন আজ আমরা জেনে নেই অতিরিক্ত ঘাম নিয়ন্ত্রণ করে প্রাকৃতিকভাবে সুরভিত থাকতে ব্যবহার করতে পারেন হাতের কাছেই থাকা কিছু উপাদান।

লেবু : লেবু চাকা করে কেটে বগলে ঘষে নিন। এটি ঘাম নিয়ন্ত্রণ করবে ও ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করবে। পাশাপাশি আপনাকে রাখবে সুরভিত। তবে ওয়াক্স করার সঙ্গে সঙ্গে এটি লাগাবেন না। জ্বলুনি হতে পারে।

বেকিং সোডা : ১/৮ চা চামচ বেকিং সোডার সঙ্গে সামান্য পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। পেস্টটি রোল-অন হিসেবে ব্যবহার করুন। অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

গোলাপজল : গোসলের পানিতে কয়েক ফোঁটা গোলাপজল মিশিয়ে নিন। এটি আপনাকে দিনভর রাখবে ঝরঝরে ও সুরভিত।

চন্দন : চন্দনে রয়েছে অ্যান্টিফাঙ্গাল, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও আন্টিসেপটিক উপাদান যা প্রাকৃতিকভাবে আপনাকে রাখবে ঘামমুক্ত। শরীরের যেসব স্থানে ঘাম বেশি হয় সেসব স্থানে চন্দনের পেস্ট লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কমে যাবে অতিরিক্ত ঘাম।

শসা : শসার রস একটি পাত্রে ঢেকে ফ্রিজে রেখে দিন। তুলার বল ঠাণ্ডা শসার রসে ডুবিয়ে বগলসহ যেখানে ঘাম বেশি হয় সেখানে চেপে লাগান। কমে যাবে ঘাম।

কোন মন্তব্য নেই