ফেসবুকে ভুুয়া আইডি, বিপাকে দক্ষিণ জেলা জামায়াত

0
ব্রেকিং নিউজ
  •                                                                                                                                    
.

ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে সংগঠনের নামে বিভ্রান্তির সংবাদ প্রচার ও আসন্ন জাতীয় নির্বাচন নিয়ে দলীয় ব্যানারে বিভিন্ন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করায় বিপাকে পড়েছে সংগঠনটি।

আজ সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতি দিয়ে জামায়াতের নামে ভুয়া আইডির ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়- ‘জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা’ নামে ফেসবুকে ভুয়া আইডি ব্যবহার এবং ‘সাতকানিয়া লোহাগাড়া নাগরিক কমিঠি’ এর বরাত দিয়ে জামায়াতে ইসলামীর নামে বিভিন্ন সংবাদ প্রচার করার প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার আমীর জাফর সাদেক।

প্রতিবাদ লিপিতে জেলা আমীর বলেন, জামায়াতে ইসলামী একটি আদর্শিক সংগঠন। সাংবিধানিক পন্থায় এ সংগঠন তার কাজ করে আসছে। আনুগত্য ও শৃংখলা এ সংগঠনের অনন্য বৈশিষ্ট্য। এ আদর্শিক সংগঠনের কাজকে ব্যাহত করতে সংগঠনের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে বিভিন্ন সংবাদ পরিবেশন ও অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

সংগঠনের দায়িত্বশীলের বরাত দিয়ে বিভিন্ন কাল্পনিক ও অবাস্তব সিদ্ধান্ত প্রচার করে সংগঠন ও জনগণের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়ানোর পাঁয়তারা চলছে। আর ‘সাতকানিয়া লোহাগাড়া নাগরিক কমিঠি’ ব্যানারে বিভিন্ন প্রোগ্রামের মাধ্যমে জামায়াতের প্রার্থী ঘোষণা করে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে সাংগঠনিক শৃংখলা ও পরিবেশ বিনষ্ট করা হচ্ছে। আমি সুস্পষ্টভাবে বলতে চাই, জামায়াতে ইসলামীর জেলা বা উপজেলা শাখার অধীনে এ নামের কোন কমিটি ও ফোরাম নেই এবং উক্ত কমিটির ব্যানারে কোন কার্যক্রম সংগঠনের দ্বারা পরিচালিত হয় না।

উল্লেখ্য, সংসদ নির্বাচনের প্রার্থীতার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের এখতিয়ার কেন্দ্রীয় সংগঠনের। কেন্দ্রীয় পার্লামেন্টারী বোর্ড এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। কেন্দ্রীয় সংগঠন চট্টগ্রাম-১৫ নির্বাচনী এলাকায় সাবেক সংসদ সদস্য মাওলানা আ.ন.ম শামসুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম-১০ নির্বাচনী এলাকায় সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শাহজাহান চৌধুরীকে জামায়াতে প্রার্থী ঘোষণা করেছে। অতএব এ ব্যাপারে বিভ্রান্তি সৃষ্টির অবকাশ নেই।

তাই ‘নাগরিক কমিটি’ এর নামে ভূয়া আইডি থেকে সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী ঘোষণা করে সংবাদ পরিবেশনের আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং এহেন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

কোন মন্তব্য নেই