বাংলাদেশ, জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেয়া হবে

0
.

চলতি মাসের শেষের দিকে ও আগামী নভেম্বর মাসে বাংলাদেশের সাথে জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ  দলের খেলাকে কেন্দ্র করে কঠোর নিরাপত্তা বলয় তৈরী করা হবে বলে জানিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ  কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান। খেলোয়াড়দের সর্বোচ্ছ নিরাপত্তা দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

বুধবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সভা কক্ষে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সঙ্গে জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের ম্যাচ উপলক্ষে নিরাপত্তমূলক সমন্বয় সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

সভায় পুলিশ কমিশনার বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে জাতীয় ক্রিকেট দল এবং বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় ক্রিকেট দলের মধ্যে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও নিরাপত্তা পরামর্শ/নির্দেশনা সম্পর্কে সকলকে অবহিত করেন। তিনি চট্টগ্রামে অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে জাতীয় ক্রিকেট দল এবং বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় ক্রিকেট দলের মধ্যে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ চলাকালীন নগরবাসীর সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন এবং নিরাপত্তা নির্দেশনা/পরামর্শ প্রতিপালনের জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

সিএমপি কমিশনার সাংবাদিকদের জানান, চট্টগ্রামে অক্টোবরে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যে দুইটি ওয়ানডে ম্যাচ এবং নভেম্বরে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে একটি প্র্যাকটিস ম্যাচ ও একটি টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এগুলো আন্তর্জাতিক ম্যাচ। আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মাথায় রেখে সকল সংস্থা ও বিভিন্ন এজেন্সির সঙ্গে আমরা নিরাপত্তা সমন্বয় সভা করেছি। এ সভার মাধ্যমে ম্যাচগুলোতে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য কার কী ভূমিকা সেটা নির্ধারণ করেছি।

তিনি বলেন, ইমার্জেন্সিতে আমাদের কুইক রেসপন্স টিম, সোয়াত ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট প্রস্তুত থাকবে। এছাড়া আমরা ২৪ পদাতিক ডিভিসন ও বিমান বাহিনীকে অনুরোধ করেছি, জরুরী সময়ে তাদের সাপোর্ট থাকবে। মেডিকেল সাপোর্টও থাকবে। যারা খেলা দেখতে আসবেন তারা ধাতব কোনো কিছু সঙ্গে আনবেন না। ব্যানার, ফেস্টুন, মার্বেল, পাথর ও এ জাতীয় কোনো কিছু যাতে সঙ্গে না থাকে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) আমেনা বেগম, বিপিএম-সেবা, উপ-পুলিশ কমিশনার, অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার, সহকারী পুলিশ কমিশনার, অফিসার ইনচার্জ, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, বিসিবি, বিভাগীয় কমিশনার, সিডিএ, র‌্যাব-৭, জেলা প্রশাসন, ভেন্যু ম্যানেজার, সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী, ডিজিএফআই, এনএসআই, চমেক হাসপাতাল, ওয়াসা, এপিবিএন, রেলওয়ে পুলিশ, বিভাগীয় তথ্য অফিস, পিডিবি, বিটিসিএল, সিভিল সার্জন, বিআরটিএ, এয়ারপোর্ট ম্যানেজার, সিসিএল, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, হোটেল রেডিসন ব্লু সহ বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, আগামি ২৪ অক্টোবর ও ২৬ অক্টোবর নগরে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যে দুইটি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১৮ নভেম্বর ও ১৯ নভেম্বর বিসিবি একাদশের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুইদিনের প্র্যাকটিস ম্যাচ ও ২২ নভেম্বর থেকে ২৬ নভেম্বর একটি আন্তর্জাতিক টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন