ঐক্যফ্রন্টের মঞ্চ প্রস্তুত, নেতাদের অপেক্ষা

0
.

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রথম সমাবেশে যোগ দিতে সিলেটে পৌঁছেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব ও নাগরিক ঐক্যর আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দাবি আদায়ের আন্দোলনে যাওয়ার আগে প্রথমবারের মতো সমাবেশ করতে যাচ্ছে সরকারবিরোধী জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

বুধবার (২৪ অক্টোবর) সিলেটের রেজিস্ট্রি মাঠে দুপুর ২টায় শুরু হবে এই সমাবেশ। এদিকে, এ উপলক্ষ্যে ইতিমধ্যেই মঞ্চ প্রস্তুত করা হয়েছে। এখন শুধু নেতাদের আসার অপেক্ষা।

জানা গেছে, আজকের জনসভায় ‘জনতার ঢল’ নামানোর প্রস্তুতি নিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। বিশাল শোডাউনের মাধ্যমে রাজনৈতিক অঙ্গন ও সাধারণ মানুষের কাছে সবার অংশগ্রহণে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের বার্তা পৌঁছে দিতে চায় এটি। একই সঙ্গে তফসিলের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সরকারপ্রধানের পদত্যাগ চায় ঐক্যফ্রন্ট। জনসভাস্থল আয়তনে ছোট হলেও সর্বোচ্চ মানুষের উপস্থিতি ঘটাতে সব প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে। রেজিস্ট্রি মাঠে গত রাতেই ৪০ ফুট দীর্ঘ, ১৮ ফুট প্রস্থ মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বলছেন, নতুন রাজনৈতিক জোটটি জনসভায় বিপুল লোকসমাগমের মধ্য দিয়ে নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা তুলে ধরার চেষ্টা করবেন তারা। একই সঙ্গে বড় আকারের জনসভার মাধ্যমে তারা সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টির কৌশলও গ্রহণ করেছেন।

অন্যদিকে, সমাবেশস্থল ঘিরে যেকোনো অপ্রীতিকর পরিস্তিতি এড়াতে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এর আগে হযরত শাহজালালের (রহ.) এর মাজার জিয়ারত করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নেতারা। ভোর ৫টার ফ্লাইটে রওনা করে ৬টায় সিলেট বিমানবন্দরে নামেই সেখান থেকে সরাসরি মাজার জিয়ারতে যান তারা। এরপর দুই আউলিয়ার মাজার জিয়ারত শেষে নেতারা হোটেলে বিশ্রাম শেষে সমাবেশে যোগ দেবেন।

আজ সিলেট নগরীর রেজিস্ট্রি মাঠে দুপুর ২টায় সমাবেশ শুরু হবে। সিলেট সিটির মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সভাপতিত্বে এ সমাবেশে প্রধান অতিথি গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন ও প্রধান বক্তা বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন