সীতাকুণ্ড সমিতি’র মিলন মেলা ও অভিষেক অনুষ্ঠিত

0
.

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

উৎসবমুখর ও বনাঢ্য আয়োজনে পালিত হয়েছে চট্টগ্রাম নগরীতে সীতাকুণ্ড সমিতির ১১ তম বর্ষপূর্তি ও মিলনমেলা। শনিবার রাতে নগরীর সিটি গেইটস্থ সুজনা স্কায়ার কমিউনিটি সেন্টারটি রূপ নেয় একখন্ড সীতাকুণ্ডে।

কেক কেটে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এরপর সমিতির নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান নির্বাচন পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা মাস্টার আবুল কাশেম। সভায় ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড.ফসিউল আলম এর সভাপতিত্বে মিলন মেলায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এস.এম আল মামুন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়, ট্যুরিষ্ট পুলিশের এডিশনাল ডিআইজি মোঃ মুসলিম, জেলা পরিষদ সদস্য আ.ম.ম দিলসাদ, কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় নেতা মোস্তফা কালাম চৌধুরী, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ন মহাসচিব দিদারুল কবির দিদার, মহানগর এপিপি ভবতোষ নাথ, মিডল্যান্ড ব্যাংকের পরিচালক মাষ্টার আবুল কাসেম,নারী নেত্রী সুরাইয়া বাকের, বাড়বকুন্ড ইউপি চেয়ারম্যান ছাদাকাত উল্লা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ ইকরাম, সীতাকুণ্ড সমিতির নব নির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক আবুল মুনছুর ভুঁইয়া, সাধারন সম্পাদক লায়ন নাছির উদ্দিন মানিক, বিদায়ী সভাপতি মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, পিএইচপি গ্রুপের ম্যানাজার এডমিন অভিজিৎ চক্রবর্তী, সাংবাদিক আবুল হাসনাত।

.

মিলন মেলা ও অভিষেক অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সীতাকুণ্ডের সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষা, চিকিৎসা ও উন্নয়ন কার্যক্রমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি সমুন্নত রাখছে এ সংগঠন। সীতাকুণ্ডবাসীর মধ্যে পারস্পরিক ভালোবাসা, সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি ও ভ্রাতৃত্বের চিরায়িত বন্ধনকে আরও সুদৃঢ় করতে প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সীতাকুণ্ড সমিতি নানা কর্মসূচির আয়োজন করে আসছে। বিশেষ করে পাবলিক পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কৃতী-শিক্ষার্থীদের সম্মাননা ও বৃত্তিপ্রদান, গুণিজন সংবর্ধনা, গরীব অসহায় ছাত্র-ছাত্রীর লেখাপড়ার খরচ,গরীব মেয়ের বিয়ের সহযোগীতা, মেজবান ও মিলনমেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ধারাবাহিকভাবে পালন করে দেশ-বিদেশে সবার নজর কাড়ে এ সমিতি। শুধু সীতাকুণ্ডবাসী নয়,বাইরের লোকজনকেও সীতাকুণ্ড সমিতির কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেতে শোনা যায়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজ উন্নয়ন মূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে

.

এ সংগঠন কালক্রমে সমাজসেবী সংগঠন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, স্কাইপি, টুইটারে সীতাকুণ্ড সমিতি- চট্টগ্রাম একটি পরিচিত এক নাম। সীতাকুণ্ডের নতুন প্রজন্মের কাছে এ সংগঠন অত্যন্ত প্রিয়।

মিলনমেলায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় এবং চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানের আয়োজনে আগত হাজার হাজার মানুষ অংশ নেন।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন