মা ও অন্তঃসত্ত্বা মেয়েসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যা

1
full_128344298_1471972728
মানচিত্রে হবিগঞ্জ।

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নে মা, তার অন্তঃসত্ত্বা মেয়েসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যা করার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন নিহত মায়ের দেবরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে ইউনিয়নের বীরসিংহপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তিনজন হলেন- ওই এলাকার সৌদি আরব প্রবাসী গিয়াসউদ্দিনের স্ত্রী জাহানারা বেগম (৪০), তাঁর অন্তঃসত্ত্বা মেয়ে শারমিন আকতার (২৩) ও প্রতিবেশী শিমুল মিয়া (২৫)। এ ঘটনায় নিহত জাহানারার আহত ছেলে সুজাত মিয়াকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ধর্মঘর গ্রামটি ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকা।

মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুকতাদির হোসেন জানান, তিনি ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন।

স্থানীয় লোকজন আরো জানায়, দেবর তাহের উদ্দিনের (৩২) সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল জাহানারার। মঙ্গলবার রাতে দুজনের মধ্যে কথা কটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে তাহের উদ্দিন দা নিয়ে জাহানারাকে কোপাতে থাকে। চিৎকার শুনে তাঁর মেয়ে শারমিন, ছেলে সুজাত মিয়া ও প্রতিবেশী শিমুল মিয়া তাঁকে রক্ষায় এগিয়ে আসেন। তাহের তাঁদের ওপরও হামলা চালায়।

চারজনকে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় সুজাতকে পার্শ্ববর্তী ব্রাহ্মণবাড়িয়া হাসপাতালে পাঠানো হয়।

তাহের উদ্দিনকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।