১৫ লাখ ব্যবহারকারীর কন্টাক্ট লিস্ট আপলোড করেছে ফেসবুক

0
.

ফেসবুকের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ উঠেছে যে, তারা যোগাযোগ করা কন্টাক্ট লিস্ট আপলোড করে নিয়েছে। তবে তারা অবশ্য বলছে, অনিচ্ছাকৃতভাবে তারা এটা করেছে।

এদিকে, একজন নিরাপত্তা বিশ্লেষক দাবি করেছেন যে ফেসবুক ২০১৬ সালের মে মাসের পর থেকে নতুন ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ই–মেইল কন্টাক্ট লিস্ট আপলোড করেছে। এখন পর্যন্ত ১৫ লাখ ফেসবুক ব্যবহারকারীর কন্টাক্ট লিস্ট আপলোড করার কথাও বলা হচ্ছে।

সম্প্রতি এক নিরাপত্তা গবেষক লক্ষ্য করেন, ফেসবুক কর্তৃপক্ষ কিছু কিছু ফেসবুক ব্যবহারকারীর ক্ষেত্রে ই– মেইলের পাসওয়ার্ড দিতে বলছে। নতুন অ্যাকাউন্ট খুলে তাদের পরিচিতি শনাক্ত করার সময় ই–মেইলের পাসওয়ার্ড জানতে চাইছে। গবেষকেরা এ বিষয়টির ব্যাপক নিন্দা করেন।

এদিকে বিজনেস ইনসাইডারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কেউ যদি নতুন অ্যাকাউন্ট খোলার সময় ই–মেইল পাসওয়ার্ড দেয়, তবে সেখানে একটি বার্তা দেখতে পাওয়া যায়। যেখানে ফেসবুক কন্টাক্ট লিস্ট স্থানান্তর করার জন্য অনুমতি চায়।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, অনিচ্ছাকৃতভাবেই ওই কন্টাক্ট লিস্ট আপলোড করা হচ্ছিল। তবে এখন তা মুছে ফেলা হচ্ছে।

২০১৬ সালের আগে একই সময় ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট নিশ্চিত করার ও স্বেচ্ছায় কনটাক্ট আপলোড করার সুযোগ ছিল। ফেসবুক পরে ওই ফিচারের পরিবর্তন করে। এখন কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা যে কন্টাক্ট আপলোড করেছে, তা মুছে ফেলা হয়েছে। তবে এর পেছনের ফাংশন অন্য কথা বলছে।

ফেসবুক মুখপাত্রের দাবি, ফেসবুক ব্যবহারকারীর মেইলের কনটেন্ট পড়ে না বা সেখানে ঢুকতে পারে না। তবে যেভাবেই হোক ১৫ লাখ অ্যাকাউন্টের কন্টাক্ট লিস্ট আপলোড হয়ে গেছে।

বিশ্লেষকেরা মনে করছেন, বেশ কিছুদিন ধরে সমালোচনার মুখে থাকা ফেসবুকের জন্য প্রাইভেসি নিয়ে এটি আরেকটি বড় ধাক্কা হতে পারে।

কোন মন্তব্য নেই