বন্ধুর পছন্দ হবে তো! আপনার দেয়া উপহার?

0
.

প্রিয় বন্ধুর বিয়ে খুব আনন্দের উপলক্ষ হয়ে আসে যে কারো কাছেই। বিয়ের হাজারটা আয়োজন, বন্ধুর সাথে আরেকটু বেশি সময় কাটানো বা অনুষ্ঠানের সব রকম পরিকল্পনা করার মাঝেও নিজের মনে চিন্তা উঁকি দেয়, কী উপহার দিব তাকে! বন্ধুই তো, আপনি তাকে সেরাটাই দেবেন, বিশ্বাস রাখুন। আর কিছুটা ভেবেচিন্তে ঠিক করুন কেমন জিনিষ দিতে চাচ্ছেন। আপনার দেয়া উপহার বন্ধুর পছন্দ হবে না, এমনটা হবার কোন সুযোগই নেই!

উপহার একা কিনছেন নাকি বন্ধুদের দল মিলে কিনছেন তার ওপর নির্ভর করবে অনেক কিছুই। বন্ধুরা কয়েকজন মিলে কিছু দিতে চাইলে একটা সুবিধা হলো বড় কোন জিনিষ দেয়া যায় সহজেই। যেটা নতুন বর-কনের নতুন নতুন সংসারে অনেক কাজে লাগবে। কিচেন-সামগ্রী কিছু নিতে পারেন বন্ধুর জন্য, রান্নাবান্নার চুলাটাই উপহার দিতে পারেন আপনারা। আপনাদের উপহারের চুলাতে রেঁধে পরে আপনাদের দাওয়াত করে খাওয়াবে নবদম্পতি। বৈদ্যুতিক-সামগ্রী যেমন রাইস কুকার, প্রেসার কুকার বা কফি মেকার জাতীয় জিনিষপত্রও কিনে দিতে পারেন বন্ধুর নতুন বাসার জন্য। এর সবই টোনাটুনির নতুন বাসার জন্য খুব কাজের জিনিষ।

কনের জন্য কিনতে পারেন গহনা। বাজেট বেশি নেই যে, সেটা ভাবলেন? কাছের সম্পর্কগুলোতে অন্তত উপহারের মূল্য তার দামে মাপা হয় না, এটা নিশ্চয় জানেন। কনের জন্য গহনা মানেই সোনার গহনা, বেশ ভারি কিছু, এই চল শেষ হয়েছে। অনেক নতুন বৌ এখন নিজের জন্য রূপোতে সোনার প্রলেপ দেয়া গয়না বানিয়ে নেয়। সেসব গয়না তারা সবসময় স্বচ্ছন্দে ব্যবহার করতে পারে। মুক্তোর গয়নাও অনেকের ভীষণ পছন্দ। তাই নির্দ্বিধায় এমন কোন গহনা বেছে নিতে পারেন কনের উপহার হিসেবে। নিজে নকশা করে বানিয়ে নিতে পারেন দোকান থেকে। হতে পারে গোল্ড প্লেটেড এক জোড়া ঝুমকো দিলেন, মিনা করানো কাজের বা মুক্তো বসানো। আবার রূপোর নুপূর অথবা কারূকাজ করা এক জোড়া বালাও পছন্দ করতে পারে কনে সুন্দরী। অন্যরকম নকশায় সুন্দর একটা নথ বা টিকলিও হতে পারে আপনার দেয়া উপহার। বিয়ের পরের সময়টায় ঘরোয়া নানা অনুষ্ঠান বা দাওয়াতে নতুন বৌ সেগুলো পরতে পারবে।

বর-কনের বিয়ের আগেই জানাশোনা থাকলে বা প্রেমের বিয়ে হলে তাদের দিতে পারেন ছবি, বিয়ের আগের জীবনের টুকরো স্মৃতিচিহ্ন। সুন্দর কোন ছবি ফ্রেম করিয়ে দিন। ছোট ছোট কয়েকটি ফ্রেমেও কয়েকটি ছবি বাঁধিয়ে উপহার দিতে পারেন। বন্ধু খুশিই হবে আপনার উপহার পেয়ে!

বই কোনদিন পুরনো হয় না। বই চিরদিনের বন্ধু। কাজেই আপনার বিবাহযোগ্য বন্ধুটি পরুয়া গোত্রের হলে প্রিয় লেখকের বা তার পছন্দের ঘরানার বই উপহার দিন। বিয়ে যেহেতু, একটি বই না দিয়ে কয়েকটিই দিন বরং! মনের মতো এক সেট বই হাতে বন্ধুর বিয়ের পরের আনন্দ বাড়বে, কমে যাবে না কখনোই।

কনের জন্য বাড়তি কিছু প্রসাধনের ডালা সাজিয়ে দেয়া যায়। ছোট্ট একটি ব্যাগে মেয়ের প্রিয় শেডের লিপস্টিক, কাজল, আই লাইনার, নেইলকালার আর ছোট আইশ্যাডো বক্স উপহার দিলেন। সাজতে ভালোবাসে এমন মেয়েদের জন্য মেকআপের জিনিষপত্র প্রিয় উপহার হবে।

বন্ধুর যদি গাছগাছালির শখ থাকে, তার নতুন সংসারের সদস্য করে কিছু গাছ উপহার দিতে পারেন। বর্ণিল টবে করে দিতে পারেন, দেখতে ভালো লাগবে তাতে। খুব গতানুগতিক না হোক, উপহার হিসেবে অন্য অনেক জিনিষের চেয়ে গাছ ঢের বেশি ভালো।

বিশাল একটা বাক্স নিন। তাতে মনের মতন অনেক ছোটখাটো জিনিষপত্র ভর্তি করুন। বন্ধু ও তার জীবনসঙ্গীর রোজকার জীবনে কাজে লাগবে তেমন যেকোন কিছু, সাথে রাখতে পারেন কিছু ঘর সাজানোর জিনিষও। খুব সামান্য সেই জিনিষপাতিও অনেকগুলি একসাথে পেয়ে নবদম্পতির ভালো লাগবে। আর বাক্সটা সাজান নিজের মনের মতো। দারুণ উপহার হবে এটা।

কোন মন্তব্য নেই